পথটা ছিল পথের মাঝেই শক্ত ভিতে
গোলাপ কলি দাঁড়িয়ে ছিল ফুলদানীতে
আরশোলাটা ফুলদানীতে পথ্য খোঁজে
খুঁইয়ে ফেলা পথের দিশা অহং বোধে
পথটা ছিল সমুখ পানে দৃষ্টি সীমায়
আঁচল শেষে ঠিক ভরসা ধ্রুব তাঁরায়
পথের শেষে ঠিকানাটা বুক পকেটে
ঊষর জলে নেত্রযুগল ভিষণ কাটে
পথটা ছিল সমুখ পানে হারিয়ে সারা
বুকের ভেতর কৃষ্ণচূড়া ভিষণ জ্বালা
অহং বোধে ঠিকানাটা ফুলদানীতে
আরশোলাটা ঠিকানাটা জাবর কাটে
আগলে রাখা ঠিকানাটা...
চির চেনা সেই পথটা...
পথের শেষে কবিতাটা...
হারিয়ে গেছে...