জীবনের যুদ্ধ আমৃত্যু, টিকে থাকার লড়াই অনাদি কাল হতে;
শুধু সময়ের পরতে পরতে বদলেছে তার ধরণ, বদলেছে তার
কৌশল আর ধীমান আত্ম প্রত্যয়ী মানব সৃষ্টি করেছে লক্ষ্যে
পৌঁছার বিচিত্র পথ, করেছে অসাধ্য সাধন, জেনেছে কত অজানা।

স্বপ্নচারী মানুষ খোঁজে ফেরে পথ, পৌঁছবে সে সুখের ঠিকানায়,
একটি স্বপ্নের মৃত্যু যেন প্রাণের একটি অংশের মৃত্যু, একটু
একটু প্রাণের মৃত্যু জীবনকে করে অসহায়, যন্ত্রণাময় শূন্যতায়
আরাধ্য প্রিয় জীবন হয় অবাঞ্ছিত,অসহ্য,অনাদৃত আর তুচ্ছ।

স্বপ্ন আর আশা নাকি জীবনের বাহন, ভাঙ্গা গড়ার কঠিন ভুবনে
টিকে থাকার লড়াইয়ে শক্তি যোগায় তারা; তাই সবকিছুর অজান্তে
হৃদয়ের উর্বর জমিতে জন্ম নেয় অবাধ্য আকাঙ্ক্ষারা আর প্রাণের
স্পর্শে অঙ্কুরিত হয় বীজ, আলোর পৃথিবীতে বিকশিত হওয়ার প্রত্যাশায়।

নষ্ট বোধের মাঝে জন্ম নেয়া প্রত্যয় সুগম-সুন্দর পথকে করে দুর্গম, পিচ্ছল,
কুৎসিত, নিষ্ঠুর; কেউ কেউ সে পথ পার হয়ে পৌঁছে যায় গন্তব্যে, কেউ কেউ
মুখ থুবরে পড়ে অন্ধকারে, ফুলে ফলে সুশোভিত হয়না তার আশার অঙ্কুর,
তারপর মনের সাথে লড়াই করে আঁকড়ে ধরে অন্যকিছু টিকে থাকার প্রয়াসে।

আস হে স্বপ্নচারীচারী মানুষেরা, আমরা যুদ্ধ করি আত্ম রিপুর বিরুদ্ধে, যুদ্ধ
করি সকল অসত্য অসুন্দর আর অবিচারের বিরুদ্ধে, সত্য, শান্তি ও মানবতা
প্রতিষ্ঠিত হউক সকলের প্রাণে, মিথ্যা আর নিষ্ঠুরতা নিপাত যাক চিরতরে।
আস শপথ করি, পরাজিত করবই সকল অন্ধ বিশ্বাস. হীনতা আর অপশক্তি।