সুখ নগর

আহমেদ সাবের
২৯ আগষ্ট,২০১২

গল্প-কবিতায় প্রকাশিত আমার “''তমসা বৃত্ত'' গল্পে কবিতাটার অংশ বিশেষ প্রকাশের পর পুরো কবিতা প্রকাশের জন্য কিছু পাঠক অনুরোধ করেছেন। সেই অনুরোধের প্রতি সম্মান দেখিয়ে কবিতাটা এখানে দিলাম। এ কবিতাটা থেকে গান হয়েছে। গানটি গেয়েছেন এবং সুর করেছেন বিশিষ্ট সুরকার আতিক হেলাল। লিঙ্ক - http://bangla-sydney.com/view_item.asp?url=Shukh-Nogor-Song

 

 

 

সুখ নগরে বসত আমার, সখী নদীর কুলে

উথাল হাওয়া লাগলো এসে আমার আউলা চুলে

ভরলো আকাশ জগত জোড়া শীশার বরন মেঘে

গুরু গুরু ডাকলো রে ঢাক, আসলো হাওয়া বেগে

ভাংলো আমার সাধের বসত, মিশলো মাটির ধুলে।

 

ছিলাম আমি শূন্যে ঘুড়ি সুখ নগরে নাটাই

প্রভু আমার কাটলো সুতা, করলো রে ছাটাই

এখন আমি ঘুইরা বেড়াই কুটা যেমন জলে

বাধলো না রে কেউ আমারে শিকল পরার ছলে।

মাঝি ছাড়া নৌকায় আমি ডুইবা আছি ভুলে।

 

জগৎ জোড়া আছে রে মন কত রঙের মানুষ

দিন বিধাতা রাখছে বানাই কাগজের ফানুস

শূন্যে থাইকা টানে সুতা, নাচে পুতুল নাচে

প্রভু তারে জান না দিলে কেমনে পুতুল বাঁচে

তিনি যদি বাঁচান আমায় কে দিব গো শূলে?

 

প্রভু থাকেন আরশি ঘরে, কেমনে কাছে যাই?

বাহির থেইকা দেখি তারে, কেমনে কাছে পাই?

হারাইলাম পথ গহীন বনে চতুর্দিকে নিশা

আশা আছে মনে মনে পাইয়া পথের দিশা

সুখ নগরে ফিরলে তিনি কোলে নিবেন তুলে।

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
তানি হক প্রভু থাকেন আরশি ঘরে, কেমনে কাছে যাই? বাহির থেইকা দেখি তারে, কেমনে কাছে পাই? হারাইলাম পথ গহীন বনে চতুর্দিকে নিশা আশা আছে মনে মনে পাইয়া পথের দিশা সুখ নগরে ফিরলে তিনি কোলে নিবেন তুলে।........প্রভুকে যেন কাছে পাই ...এইকামনা প্রতি নিশ্বাসে ...ধন্যবাদ কাকাকে সুন্দর কবিতাটির জন্য ...
Lutful Bari Panna কবিতার হিসেবে সত্যিই একটা মাত্রা কম আছে সাবের ভাই। তবে গানের সংগে, সুরের সংগে একটুখানি পরিচয় ছিল কিছু শিল্পী বন্ধুর কল্যাণে। মাত্রা তো উচ্চারণের একটা টান। ওরা সেটা কীভাবে যেন ঠিক করে নেয়। এজন্যই বোধ হয় গানের মাত্রা নিখুঁত না হলেও চলে। আপনার লিংকটা কাজ করছে না। গানটা শোনার খুব শখ ছিল।
আহমেদ সাবের পান্না, একটা মাত্রা কম আছে। তবে লেখার সময় "কাগজের" শব্দটা বোধ হয় টেনে পড়েছি বলে ব্যাপারটা ধরতে পারি নি। এখন মুশকিল হলো, "কাগজের" বদলে মাত্রা মিলিয়ে সঠিক শব্দ খুঁজে পাচ্ছি না। গানের লিঙ্কটা সরাসরি চাপ দিলে কাজ করবে না। কপি / পেষ্ট করতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে যেন কোন স্পেস না ঢুকে পড়ে। আমি ট্রাই করলাম। কাজ করছে।
ইসমাইল বিন আবেদীন আপনার লেখাতে মন্তব্য করার সাহস আমার নেই তবে এই ২ তা লাইনে গিয়ে আমি একটু ধাক্কা খেলাম স্যার আমাকে একটু খোলাসা করবেন কি ? " জগৎ জোড়া আছে রে মন কত রঙের মানুষ দিন বিধাতা রাখছে বানাই কাগজের ফানুস"
আহমেদ সাবের ফানুস (কাগজের বেলুন) এখানে খেলনা অর্থে। "ছিলাম আমি শূন্যে ঘুড়ি" উল্লেখ্য। পৃথিবী জুড়ে কত রকমের মানুষ আছে, স্রষ্টা খেলনা বানিয়ে রেখেছেন।
ইসমাইল বিন আবেদীন আমি ফানুসের অর্থ বুঝেছি এবং জানি কিন্তু এখানে দিতীয় লাইনে একটা মাত্রার অভাব মনে হয়েছে প্রথম লাইন থেকে " জগৎ জোড়া আছে রে মন কত রঙের মানুষ - দিন বিধাতা রাখছে বানাই কাগজের ফানুস"
আহমেদ সাবের দুঃখিত, আপনার প্রশ্নটা বুঝতে পারিনি বলে। সত্যিই তো, খেয়াল করিনি যে একটা মাত্রা কম আছে। ভুলটা ধরিয়ে দেবার জন্য ধন্যবাদ।
ইসমাইল বিন আবেদীন ধন্যবাদ স্যার !
আহমাদ মুকুল গল্পকবিতায় লেখা পাঠ মোটেই হচ্ছে না। পিছিয়ে পড়া থেকে আড়ষ্টতা....আড়ষ্টতা থেকে জড়তা। আপনার তরতাজা লেখাটি দেখে লোভ সামলাতে পারলাম না।....শেষ বিকেলে পড়তে পড়তে মনটা উদাস হলো ভাই। সূরে মাটি ভাটির তান....সাথে মারেফতের টান।...আসল, মিশল, কাটল, বাধল শব্দগুলিতে ‘ও’ কার দেয়া যেত মনে হয়।...ভাইজান, নিরন্তর আপনার সুস্বাস্থ কামনায়.....
আহমেদ সাবের ধন্যবাদ ভাইজান। আশা করি ব্যস্ততা কাটিয়ে উঠেছেন। অনেকদিন পর আপনার দেখা মিললো। আসল, মিশল, কাটল, বাধল শব্দগুলিতে ‘ও’ কার দেব কি দেব না, ভাবতে ভাবতে শেষে না দিয়েই পোষ্ট করলাম। এখন এডিট করে ‘ও’ কার যোগ করে দেব। ভাল থাকবেন।

আগামী সংখ্যার বিষয়

গল্পের বিষয় "ঘূর্ণিঝড়”
কবিতার বিষয় "ঘূর্ণিঝড়”
লেখা জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২৫ জুন,২০২৪

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।।

প্রতি মাসেই পুরস্কার

বিচারক ও পাঠকদের ভোটে সেরা ৩টি গল্প ও ৩টি কবিতা পুরস্কার পাবে।

লেখা প্রতিযোগিতায় আপনিও লিখুন

  • প্রথম পুরস্কার ১৫০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • দ্বিতীয় পুরস্কার ১০০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • তৃতীয় পুরস্কার সনদপত্র।

এপ্রিল ২০২৪ সংখ্যার বিজয়ী কবি ও লেখকদের অভিনন্দন!i