বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।
Photo
জন্মদিন: ১০ জানুয়ারী ২০১৮

keyboard_arrow_leftসাহিত্য ব্লগ

শুভ জন্মদিন হায়াৎ মামুদ

প্রসেসসর

  • advertisement

    হায়াৎ মামুদ

    বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের অন্যতম শ্রেষ্ঠ লেখক হায়াৎ মামুদের জন্ম ব্রিটিশ ভারতে, পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলার মৌড়া নামে অখ্যাত এক গ্রামে, ১৩৪৬ বঙ্গাব্দের ১৭ই আষাঢ় (২রা জুলাই ১৯৩৯) তারিখে। ১৯৫০ সালের সাম্প্রদায়িক  দাঙ্গার অভিঘাতে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত পিতার হাত ধরে চলে আসতে হয় ঢাকা শহরে। অদ্যাবধি সেখানেই বসবাস। স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা সমাপ্ত করেছেন এই শহরেই। পিএইচ.ডি. তুলনামূলক সাহিত্যে, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে, প্রায় প্রৌঢ় বয়সে। মস্কোয় অনুবাদকের চাকরি করেছেন প্রগতি প্রকাশনে। দেশের অভ্যন্তরে চাকরি, খণ্ডকালীন কেরানিগিরি (বাংলা একাডেমীর)
     বাদ দিলে, সর্বত্রই শিক্ষকতা—প্রথমে কলেজ, পরে বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং বিদেশেও। ১৯৭৮ থেকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে শিক্ষকতায় নিয়োজিত থেকে ২০০৪ সালে অবসর নিয়েছেন। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মানববিদ্যা ও সমাজবিজ্ঞান ইন্সটিটিউটেও খণ্ডকালীনভাবে ছিলেন কিছুকাল।
    বাংলা একাডেমী পুরস্কার পেয়েছেন শিশুসাহিত্যে। পশ্চিমবঙ্গ বাংলা আকাদেমিতে ‘লীলা রায় স্মারক বক্তৃতা’ দানে সম্মানিত। বাংলা ভাষায় রুশ ফেডারেশনের পুশকিন পুরস্কারে ভূষিত। দেশ-বিদেশের সারস্বত সমাজের সঙ্গে যোগাযোগ আছে।
    সৃজনশীল রচনা, অনুবাদ, গবেষণা, শিশুসাহিত্য, জীবনীগ্রন্থ, সাহিত্য-সমালোচনা, ইত্যাদি মিলিয়ে তাঁর প্রকাশিত গ্রন্থসংখ্যা ষাটের কাছাকাছি।


    -গল্প-কবিতা ডেক্স

advertisement