আঁধার এক অধ্যায় নিয়ে লেখার চেষ্টায়। মানুষ যে সময়ের সাথে পরিবরতন হয়ে যায়। তার এক পরিনতি বলতে চেয়েছি ।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৮ নভেম্বর ১৯৯৩
গল্প/কবিতা: ৪০টি

সমন্বিত স্কোর

৩.৩২

বিচারক স্কোরঃ ১.৮২ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৫ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - আঁধার (সেপ্টেম্বর ২০১৮)

আঁধারের চোখে জল
আঁধার

সংখ্যা

মোট ভোট ১০ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.৩২

নাজমুছ - ছায়াদাত ( সবুজ )

comment ১০  favorite ০  import_contacts ১৮২
মধ্য রাত চাঁদনী কোথায়?
চাঁদনী নেই-
অনেক আধার।
বুনো ফুল অট্ট হাসে,
ধানের শীষ ঘাসের ডগা
দুঃখে বোনে অগাধ শিশির ।
বিরহী বাতাস থমকে দাঁড়ায়
শিউলি ফুল গন্ধ হারায়
আর ঝরে না।
পথিক সেই কবে গেল
এপথ ধরে,
আর ফিরল না ।
সাইকেলের ঐ প্যাডেল শূন্য
নেই সেই ছোঁয়া,
বেল বাজে না আর ঐ টুংটাং সুরে!
মায়ের চোখ এখন যেন স্রাবন ধারা।
অন্তর বলে খোকা এল
ঐ যে দূরে পথের ধারে ।
খোকার প্রিয় বইয়ের ব্যাগ
আর সাদা জামা
কেন লাল?
বাবার কাঁদে কে আসে ঐ
আকাশ আজ মেঘে ঢাকা
সূর্য কেন অস্তাচল?
ডুবে গেল সূর্য রাজ
মুখ লুকিয়ে মেঘের আড়ে -
কি ভেবে তাই,
বৃষ্টি এলো ঝমঝমিয়ে
ভিজলো মাটি
খোকার কবর।
আজো ভেজে আষাঢ় শ্রাবণ
বৃষ্টি এলে এই বাংলা,
দিন যায় বছর যায়
ভুলেও কি কেউ রেখেছে খোকার খবর ?

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement