জন্মের পর মাস ছয়েক ছিলাম মায়ের ঘরে
তার পর চলে এলাম পরকে আপন করে।
জন্ম মাতা হইল পর, পর মাতা হয় আপন,
সেই ঘরেতে শুরু হইল আমার জীবন যাপন।

জন্মের পরে দেখিনাই কভু আমার বাবার মুখ,
সুখের চাইতে দুঃখ বেশি কেঁদে ভাসাই বুক।
আটা,যাই,খেয়ে আমি,বড় হইলাম সেই মায়ের ঘরে
সেখান হতেও হইলাম বাহির বিশটি বছর পরে।

কোথাই থাকি কোথাই খাই নেইতো বাড়ি ঘর,
যেথাই রাত সেথাই কাটাই সবাই করছে পর।
জন্মেও পর বাবাকে কভু ডাকতে পারিনাই বাবা বলে,
আমার মত জনম দুঃখী দেখিনাই পৃথিবী জুড়ে।

ভাই বল বোন বল, বল জনম মাতা
সবার জন্যই আমি কাঁদি মিললনা আমার সহায়দাতা।
শান্তি পাইতাম তবুও আমি যদি বাবা বেঁচে থাকত আমার,
বুকে জড়িয়ে নিত আমায় কাছে ডাকত বার বার।

ইচ্ছে করে মাকে আমার জড়িয়ে ধরি বুকে
জানিনা মায়ে আছে কোথায় পাইনা তাকে খোজে।
আমার মত অসহায় বল আর কেবা আছে ধরায়
কে দিবে মোর মায়ের খোজ কে বা হবে সহায়।।