শিশু কালে হইছি বড় আমরা দুটি ভাই-বোন
যেথায় খুশি সেথায় যাইতাম রাখতো না কেউ খোজ।
বন্ধু বল বান্ধব বল যাইতাম না কারও ধারে
মনের কথা বলতাম আমরা একে অপরকে খুলে।
বোনটি আমার ছিল আপন ছিল খেলার সাথী
বোনটিই যেন ছিল আমার আন্ধার ঘরের বাতি।
যখন ইচ্ছে তখন খুশি বসত বায়না ধরে
না দিলে তার বায়নার পাওনা যাবে সে মরে।
রাগে ক্ষোভে বসে থাকত মুখটি করে ভার
আদর সোহাগ দিয়ে আমি ভাঙাতাম তার রাগ।
বোনের চোখে কখনও যদি দেখতাম চোখের পানি
না জানি কত দুঃখ পাইছে বসে ভাবতাম আমি।
ছোটকালে হারাইছি বাবা মা ছোট বোনকে নিয়ে
আমার ছিল যত স্বপ্ন বেনের হাসি ঘিরে।
খালে বিলে মাঠে ঘাটে যাইতাম যদি ও হাটে
বোনটিই ছিল সঙ্গের সাথী থাকত সারাক্ষণ কাঁদে।
লেখা পড়া শিখায়ে বোনকে করলাম অনেক বড়
কবে যেন খালি হয়ে যায় আমার সুখের ঘড়।
সুখে দুঃখে ভাই বোন মিলে কাটাইলাম বিশটি বছর
বিয়ের পরে বোনটি আমার হয়ে গেল পর।