মা যেদিন আমায় অক্ষরলিপি প্রথম চেনালো!
তখনও জানিনিতো এ রক্তের ভাষা বাংলা বর্ণমালায় ছলোছলো!
তাই কি বাংলা ভাষা এ জগতে আমাদেরই রক্তজলের আলো!
বিশ্ববাসি জানে একুশ মানেই এক মাতৃভাষা অর্জনে ঝলমলালো!

বায়ান্ন দেখিনি বটে তবুও জেনেছি ফেব্রুয়ারী রক্তমূল্যে কেনা!
আমাদেরই অনন্য বর্ণমালা জন্মজন্মান্তরের বন্ধনে চেনা!
বাংলা মায়ের গর্ভে জন্মানো শিকড়জাত সন্ত সেইসব ভাই!
আসাদ-সালাম-রফিক-জব্বার-বরকত অমূল্য আমার ভাই!

ওরা যে আসবে বলে আজও জানলাতলে জাগি!
ওরা যে আসবে বলে আজও জানলা খুলে রাখি!
যে শিশু প্রথমপাঠে শেখে মায়ের মুখের বুলি!
শিশুর সে পাঠে বুঝি শব্দাকাশে দোল খায় বাংলার বুলবুলি!

শিশিরস্নাত জাগ্রত তারাগুলি বুঝি ভোরের জ্বলন্ত শুকতারা!
এদেশ ব্যাতীত আর কোনও আকাশে জ্বলেনাগো তারা!
তারা যে আমার ভায়ের অদম্য রক্তে রাঙা এই বাংলার বর্ণমালা!
অক্ষর লিপিতে লিখি তাদের স্মরণে আজি এ পঙক্তিমালা!