লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২৩ এপ্রিল ১৯৭০
গল্প/কবিতা: ৬৩টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftপূর্ণতা (আগস্ট ২০১৩)

কাজের শেষে
পূর্ণতা

সংখ্যা

দীপঙ্কর বেরা

comment ৫  favorite ১  import_contacts ১,১৮০
কাজের শেষে
ছন্দদীপ বেরা / শ্রেণী-সপ্তম বিভাগ-ক রোল-৬
হাওড়া জিলা স্কুল


মানিক বাবু তার অফিসের কাজের সময় একদম কাজ করতে চায় না । রোজ দেরি করে অফিসে আসেন । বেশির ভাগ সময় চা খেয়ে গল্প করে কাটান ।
প্রতিটি কাজ কিছুতেই তিনি শেষ করতে চাইতেন না । একটু করার পর ফেলে তিনি রাখবেন । পুরো কাজ করে ওঠা যেন তার কোষ্ঠীতে লেখা নেই । তার বসের কাছ থেকে এক-একটা ফাইল আসত । আর সেই ফাইল শুধু মানিক-বাবুর সামনে জমা হত । একটু কাজ করল কি করল না আবার তা বন্ধ করে রেখে দিত ।
মাঝে মাঝেই তার বস তাকে ডেকে পাঠাত । দু-চারটে কথা শুনাত , আর ফাইলের খোঁজ খবর নিতেন । আর মানিক-বাবুর যেন এ সব শোনা আর অন্য কান দিয়ে বের করা অভ্যাস হয়ে গেছে ।
এরকম করে দিনের পর দিন চলে যাচ্ছিল । আর ক্রমাগত ফাইল জমছিল । মানিক-বাবুর ডাক পড়ত আর তেমনি ভাবে শুনেই চলে আসতেন ।
কোম্পানির থেকে তিনি মাসে মাসে মাইনেও নিতেন । তার বদলে খুব কমই কাজ দিতেন । আবার কোম্পানির বস তাকে বের করে দিতে পারছে না । তার কারণ মানিক-বাবুর বাবা । তিনি এই অফিসের জন্য অনেক সেক্রিফাইস করেছেন । সেই সুযোগে মানিক বাবুও নিজের কাজে চূড়ান্ত ফাঁকি দিয়ে চলেছেন ।
এই চাকরির টাকায় তিনি বাড়ি করেছেন , গাড়ি করেছেন । সারা বাড়ি শৌখিন জিনিসে ভরা । মানিক বাবুকে ফাঁকিবাজিতে কেউ আটকায় না , একমাত্র তাঁর স্ত্রী ছাড়া । তিনি মানিক বাবুকে বারবার সতর্ক করেছেন । কিন্তু তিনি শোনবার পাত্র নন ।

একদিন এই নিয়ে রণক্ষেত্র হয়ে গেল । - আজ থেকে ঠিক ঠিক সব কাজ আসবে না হলে কিন্তু এ বাড়ি আর আস্ত থাকবে না ।
- তোমার কি বলতো ? আমি যা ইচ্ছে খুশি করব । তোমার কি ?
- আমার অনেক কিছু । এবং তোমারও অনেক কিছু । ভবিষ্যতের কথা
ভাবো ? ছেলে মেয়ের কথা ভাবো । অফিসে নিজের কাজ করলে ভাল লাগবে । বলো ভালো লাগে ।
-না , ভালো লাগে না । কিন্তু বয়স হয়েছে । এখন শরীর আর পেরে উঠে না । আবার বেশি উপার্জনও দরকার ।
-ওটা তোমার বাহানা মাত্র ।
-তা একদিকে ঠিক । কিন্তু মনের সাথে সাথে শরীরও আর ...
-একদিন সৎ পথে পরিশ্রম করে উপার্জন করে দেখো , সব কাজ পূর্ণ করে আসবে দেখবে কেমন লাগে । মনের বোঝা সব হাল্কা হয়ে যাবে ।
পরের দিন মানিক বাবু নিজের অফিসের সব ফাইল আপ-টু-ডেট করে ফেললেন । বসের সঙ্গে দেখা করে কাজ চেয়ে কাজ সব পূর্ণ করে তবে অফিস থেকে বেরলেন । এইভাবে সারা মাস কাজ করে বেতন নেওয়ার সময় তিনি অনুভব করলেন – তার মন অনেক হাল্কা লাগছে ।
অফিসের অন্যরা মানিক বাবুকে দেখে অবাক হয়ে গেল । বসও বেশ সন্তুষ্ট হলেন ।
সব কাজ কে যেভাবে মানিক বাবু পূর্ণ করলেন তাতে তাঁর মনে যে সুখ ফিরে এসেছে তা বলা বাহুল্য ।।
-০-০-০-০- ১৯.৭.২০১৩
এই গল্পটি আমার ছেলের লেখা । বয়স মাত্র ১২+ । সকলে মতামত জানাবেন ।

advertisement

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement