পুষ্পরেণু ছড়ানো ছিল যোগ দেয় ভাত কাপড়
রেগে ওঠা চরিত্রে সেও দিয়ে দেয় এক থাপ্পড়

এভাবে জীবনের রামধনু আঁকা যৌগ চালচিত্র
বেড়া ডিঙিয়ে ঘাস খাওয়া স্বভাব সুলভ মিত্র

দখল মাটির আরো ভেতর ডাক পড়েনি আমি
যুগের বাহানায় ওরা সকলেই দিনের সম্ভবামি

নীচু জমিতে ফসল খুঁড়ে রেখেছে গুপ্ত রামধনু
পাঠক্রমে বলা ছিল পূর্ব পুরুষের বংশ হল মনু

মাতাল হাওয়া ঘুরিয়ে ফিরে যায় রৌদ্রের স্নানে
জ্বলাঞ্জলি দিই নি কিচ্ছু যতটুকু তোমারে সম্মানে