একরাশ স্বপ্ন বুকের মাঝে,
চোখের গভীরে আর প্রতিটি হৃদস্পন্দনে,
আমি পাখি হবো,
ডানা মেলবো নীল নীলিমায়,
উড়বো স্বাধীনভাবে।
কিন্তু পাখিরা কি এক্কেবারেই স্বাধীন?
তাদের কি কোনো বন্ধন নেই?
নেই কি কোনো আবদ্ধ দিগন্ত?
তার জীবন এ কি নেই কোনো সীমান্ত?
নেই নির্দিষ্ট এক গন্তব্যে ছুটার আকুলতা?
যদি থাকে,তাহলে কেনো পাখির মতো স্বাধীন হতে চাই?
কেন মনে এতো অপূর্ণতা,
মানব হওয়ার এতো আক্ষেপ?
না,আমি আর পাখি হতে চাই না...
পুরোনো স্বপ্ন টা আমি এখন মুছে ফেলেছি
হৃদয় এর পট হতে।
আমি মানুষ,মনুষত্ব্যেই আমার পূর্ণতা,
মানুষ হয়ে জন্ম নিয়েই আমি হয়েছি
সৌভাগ্যবান,হয়েছি একেবারেই পূর্ণ...
তাই আমি আর হতে চাই না পাখি,
উড়তে চাই না নীল দিগন্তে,
আমি এখন মানুষ হওয়ার আনন্দে উদ্ভাসিত,
আনন্দিত,বিমোহিত,হর্ষিত...
আমি পূর্ণ,ভাসছি এখন পূর্ণতার জোয়ারে...