বারেক ফিরে ফেলে আসা পায়ের চিহ্নে হাত বুলিয়ে
অনেকটা পথ একলা এসে যখন তখন থমকে দাঁড়াই ।
এখনো বিস্তৃত কালোকেশে সুনামির ঘ্রাণ
গ্রীবার কম্পনে রিখটার স্কেল হার মানে
সংগোপনে জীবাশ্ম হয়ে পড়ে রই যুগ যুগ কেন্দ্রস্থলে তোমার ৷
অসংখ্য প্রতিলিপির ভিড়ে আমি হারাই না
হারাই কেবল অলিখিত নিষিদ্ধ সংবিধানে ৷

হাতের উপর হাত
থাক না থাক
আলতো আঁচলে বেঁধেছো সকল ৷

কিছু কথোপকথন নিয়ম করে ইন্তেকাল করেছিল
নিয়মিত অনুশোচনায় কিছু ভুল অভিমানে ৷
সেদিন আনমনা বিকেলটা অবসরে গেল
রেখে গেল আমায় সূর্যাস্তের এপিটাফে মুড়িয়ে...

প্রিয় সব কথা অপ্রিয় যখন হৃদয়ের মুদ্রাদোষে
তবুও অপ্রিয় তোমাতেই প্রিয় হতে সাধ জাগে রুহের আর্তনাদে ৷