এখানে ভোর হয় পাখিদের ডাকে।
দোয়েলের মনোহরা শিস আর মোরগের কুক্কুরুতে
নিদ্রা হতে জাগে পুরহিত, মুয়াজ্জিন।
মুয়াজ্জিনের আজানের ধ্বনি, আর পুরহিতের ঢং ঢং
আওয়াজ শুনে ধর্মভিরু মানুষজন
নিদ্রা হতে জেগে, করে বিধাতা স্মরণ।

ভোরের আলো ফুটে অন্ধকার বিদায় নিলে
কৃষক তার সরঞ্জাম হাতে তুলে
মাঠে যায় হাটি হাটি পা ফেলে।
যার কোন জমি নেই, দিন মজুর
একত্রে জড় হয়ে জমায় বাজার
শ্রমটুকু বিক্রয় করতে নিজের।
গৃহিণীর বাড়ির আঙ্গিনা করে পরিষ্কার
আয়োজন করে রান্না বাটার।
কোমল তুলতুলে নিষ্পাপ ছেলে-মেয়ে
পিপড়ার মতো পিলপিল পায়ে
গাঁয়ের মসজিদে সমবেত হয়ে
কালিমা, কোরান, মাখরাজ শেখে।

এইভাবেই প্রতি দিন ভোর হয় গায়ে
ইচ্ছা হলে দেখতে পার আইয়ে।