সূর্য দীপ্ত প্রখর, কঠিন কিরণে পুড়ে যায়
বালুকণা, জ্বলে উঠে জলকণা, তবুও সেখানে
খুঁজে পাই অবাধ সারল্য। আরাধ্য যারে নিয়ে
প্রতিক্ষণ মনে মনে, সেই সে আকাশ –
এখনও কতটা ধুঁয়াশা, কুয়াশা হয়ে রঙ বদলায়
ক্ষণে ক্ষণে।
সূর্য অস্থিত্বহীন নয় অথচ আকাশ এখনও মরিচিকা
কেবলই মিলিয়ে যায় শূন্য অগোচরে। ব্যাপ্তির বিশালতায়
হারিয়ে যাওয়া সরলতা খুঁজে ফিরি উন্মত্ত নেশায়।
নিয়ত প্রসারমান ব্যাপ্তির অশনি প্রলোভনে
সরল হিসেব গরল করে ভ্রান্ত হাওয়ায় উদ্ভ্রান্ত
পথিকের মত দ্বিগ্বিদিক ছুটোছুটি – এই বুঝি
হারিয়ে ফেললাম সূর্য; আরেকটি নক্ষত্রের পতন
এখনই এইমাত্র- আমার বুক থেকে।
ব্যাপ্তির বিশালতায় সরলতার পতন অনিবার্য!