যেখানে আমি যেমন ছিলাম আজো সেখানে তেমনি
তুমি কোন খোঁজ নাও নি, আমার অফুরন্ত সময়, আমার ইচ্ছের পালক
তোমার ইচ্ছের খোরাক জোগাতে তটস্থ; আমার পছন্দ-অপছন্দের দীর্ঘ তালিকাটা
পরিত্যাক্ত ফুলের মত, নল খাগড়ার আহত সাপিনীর মত
খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে হেঁটে চলেছে ।

তোমার সকল শাসন, সকল বারণ
মহা দেবতার আশীর্বাদের মত আমি মাথায় করে রেখেছি
মশারি টানানো থেকে হাঁড়ি পাতিল, টাই বাঁধা
না খেয়ে ভোরের পাখির মত নির্ঘুম তাকিয়ে থাকা !

আচ্ছা বলতে পারো
তোমার কোন ইচ্ছেটা আমি অপূর্ণ রেখেছি ? অথচ তুমি,
তুমি একটুও খোঁজ নাও নি;
আমার কচু পাতার মত মনের অলি গলি
একবারও জানতে চাওনি
আমার রঙধনুর সাত রঙ কেন খড় খুঁটোর মত ভেসে চলেছে
কোন এক অথৈ মহাসাগরের অজানা স্রোতের অমোঘ টানে !

দুরের আকাশের পূর্ণিমা চাঁদের দিকে তাকিয়ে থাকার মত
আমিও চেয়ে আছি তোমার পানে
কখন তোমার ক্ষয়ে যাওয়া বোধ গুলো জেগে উঠবে
আমার ইচ্ছে গুলো, তোমার ইচ্ছার সৌধে হাত ধরাধরি করে পথ চলবে
বনের ভিতর, মনের ভিতর
আহত ইচ্ছের পাখি গুলো গান গেয়ে উঠবে !!!