হতে পারে আমি প্রভাকরের তপতী
কিন্তু সৃষ্টি করিনা মেঘ
মেঘকে চিপড়িয়ে ফেলিনা বারি
যা ভূপৃষ্টকে এনে দেয় একরাশ তৃপ্তি।

কখনও দেখিনা বৃষ্টিকে নিবিষ্ট চিত্তে
দেখিনা তার কত রূপ,
তার ধারায় সৃষ্ট প্রকৃতির
আর মানুষের চকিত সুখ,
দেখিনা বয়ে যাওয়া দুঃখ।

আমি দেখিনা প্রলয়ঙ্করী বৃষ্টির রূদ্ররূপ
কিভাবে মূহুর্তে ভাসিয়ে নেয়
ধরার কত শত হৃদয় বন্ধন।

অনুভব করার প্রচেষ্টা আমার শৃংখলিত
পারিনা সেই শৃংখল ভেঙ্গে ফেলতে
অথবা চেষ্টাও করিনা তা !
কারন আমি ভাসছি আমারই
অন্তরের সৃষ্ট ভয়াবহ বন্যায়,
যেই বন্যা সৃষ্টি করে গুমোট কান্না
এই ভাবনা বিমূখতাকে
কখনও ভাবিনি অন্যায় ।

আমি যে ভাসছি আর খুজছি অবলম্বন
যা আমাকে রক্ষা করবে
রক্ষা করবে আমার সারল্যকে
রক্ষা করবে আমার সত্তাকে
কাটাবে আমার তমসা তন্ময়তাকে,
সেই হৃদয় ক্রন্দনের বন্যায় আমি ভাসছি
নির্মল,হিংসামুক্ত পৃথিবীর জন্য ।