নিজেকে ভেঙ্গে নিত্য গড়ি দু’বেলা
আজ একান্ত অপরিহার্য্য অনুভবের এই কাটা ছেড়া
বোধের দরজায় দিয়ে হানা খুঁজি নতুন কুটুম
ঈর্ষা, অহং, বিশ্রী কুটিলতা।
যেদিন বললে আমায় সরলতার প্রতিমা
সেই থেকেই আমার এই নিজেকে খোঁজা।
নির্ভার হতে পারার অপূর্ব প্রশান্ত মুখশ্রী তোমার
ও চোখের অনির্বচনীয় আনন্দ ধারা।
আমার সবটুকুর বিনিময়ে কেনা।।
এই সুখে অনন্তর থাক আপ্লুত,
নিরন্তর সেই প্রচেষ্টায় প্রতিদিন
নিজেকে ভেঙ্গে নিত্য গড়ি দু’বেলা।
কুটিলতা কিংবা কোন মলিনতার প্রশ্রয়
তোমাকে নয় আজ বড় বেশি আহত করে আমায়।
তোমার তরে তাই নিজেকে আমার এই, নিত্য ভাঙ্গা-গড়া।।