তোমাকে ভালবাসার স্বাধীনতা আমার কই
দেখো লাঠি হাতে কুসংস্কার ব্যাটা দাঁড়িয়ে আছে ঐ !
তোমার অন্তরাত্মা ভয়ে জড় সড়
আমিও তোমার ধ্বজাধারী
কেমনে বাঁধিব তোমার-আমার পিরীতের ডোর !
শিকল ছিঁড়িয়া
বাঁধন কাটিয়া
জলের ছলে ঘাটে আসিও ওগো মন চোর !
এদিক সেদিক তাকিয়ে নিও
ঘাস ফুল গুলি দেখে ফেলে যদি
না হয় কাঁদিয়া কাটিয়া পাহাড়ের গায়ে
ঝর্ণা বহাও নিরবধি !
দেখো জংলা পাখি কেমন পিঞ্জিরায় রয়েছে বন্দী
দিবানিশি দুঃখের সাথে কেমন করেছে সন্ধি !
তোমার বাবা
আমার বাবা
কোন শিকল দিয়া
বাঁধিবে মোদের পরাণ পাখি
নকশি কাঁথার মত
মনের পাতায়
যখন তোমার ছবি আঁকিয়া রাখি !