স্বাধীনতার ডাক শুনে যে, আসল নাত কেউ
ওহে যুবক, ওহে তরুণ, রইলি তোরা কই।

মা বোনদের ইজ্জত যে আজ দুলায় লুণ্ঠিত
শিশু কন্যারা আজ যে অনাহারে ক্লিষ্ট।

রক্তে রক্তে ভাসসে মানুষ
পঁচা গন্ধে চতুর্দিক বিমুখ
মরা মানুষ ভাসছে নদীতে।

ওহে যুবক ওহে তরুণ
এখনও রইলি তোরা কেমন নিঃশ্চুপ।
মারা মারি কাটাকাটি হচ্ছে নির্বিচার
ঘুম হত্যা আর রাহাজানি চলছে সমান তালে।

ঊুদ্ধিজীবী, মৎস্যজীবী, চাকুরীজীবীরা মিলে
সমান তালে রুখছে যে আজ অসীম সংগ্রামে।
কুলি-মজুর, নাপিত-তাঁতি দাঁড়ায় একই সাথে
সাদা-কালোর সব বেধাবেধ ভুলে তারা
লড়ছে মরণ পনে।

ওহে যুবক ওহে তরুণ, ডাকছে তোমায় ভীরে
রকত দিবার শ্রেষ্ঠ সময়, ঢালবে নিঃশেষে।
নিজের জীবন বিলিয়ে দাও, লক্ষ্য প্রাণের দামে
জাতি তোমায় মনে রাখবে সভ্যতা যত দিন থাকে।