তৃঞ্চার্ত মমতার মত দৃষ্টি তবু তার,
মরিচিকার ছিলনা সেখানে সম্ভার।
চোখ দুটি কবেকার চন্দ্রের মত অবিরত,
ধুলায় ধরিছে তবু যত্র তত্র।
অন্যায় হীন দুহাত বাড়িয়ে চেয়েছ মোর পানে,
তোমায় তবুও ভূলেছি আমি জানিনা কিসের টানে।
সমুদ্রাসিক্ত হয়ে রিক্ত,
তবুও ছিনু মুই খর রৌদ্র খরা অভিব্যাক্ত।
অবশেষে ভূল মোর ভাঙল যখন,
অতিদূরে চলে গেছ তখন।
হাতছানি দিয়ে ডেকেছি তোমায়,
তুমি ভূল বুঝেছ আমায়।
মুই ব্যাকুল হৃদয়ে ডেকেছিনু তবু,
ভূল বুঝেছ মোরে তুমি তবু।
শেষ প্রান্তে যদি তুমি জানতে
মোর ভালবাসা ছিল অন্তরের গভীরে।
বিচ্ছেদ হল যেন নদীর দুকূল,
অবশেষে জানতে চাই আমি,
কেমন আছ তুমি।
আষ্টে পিষ্ঠে বাধা দুকুল যেন,
ছাড়িছেনা দাড়িয়ে আছি এখনও।