লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১ ফেব্রুয়ারী ১৯৭৩
গল্প/কবিতা: ৭৯টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftঅন্ধকার (জুন ২০১৩)

জলে ভাসা
অন্ধকার

সংখ্যা

জসীম উদ্দীন মুহম্মদ

comment ২০  favorite ২  import_contacts ১,২৫০
সেদিন ভর দুপুরে কাঠ ফাটা রোদ, গাড়ির চাকা বন্ধ
দু পায়ের বারোটা বাজিয়ে
সানকি পাড়া বাজারে পৌঁছতেই দেখি সব কিছুতেই কেমন দ্বন্দ্ব !
একটানা সুর করে ভিখ মাগছে গুঁটি কয়েক অন্ধ !
জালি লাউয়ের ডগা গুলো জলদ গম্ভীর স্বরে আবোল তাবোল বকছে
মটরশুটি, কাঁকরোল আর কাঁচ কলার মাথা ভীষণ চড়া
এক পা দু পা করে পেছনে আসতেই টের পাই মাছের গরম
পাশের দোকানে ঝুলানো মাংসের টুকরো গুলো পেল বেজায় শরম !
অজান্তেই দু হাত চলে যায় অন্ধকার পকেট ঘর
নিমিষেই বুঝে যাই আলো আর আঁধারে কে আপন কেবা পর !

ঝাপসা চোখে তাকাই এদিক ওদিক
আঙ্গুলের কড়ে গণি মহাজনের হিসাব
জলে ভাসা পদ্ম পাতার মত আমিও ভাসি আঁধারে
এর চেয়ে ভাল হত যদি থাকতাম বনে বাদাড়ে !
কোন কালে বনসাই, কোন কালে চিল
যেমন খুশি পাখা ঝাপ্টিয়ে ঘুরে বেড়াতাম সাধের রনিয়া বিল !

আবারও বাড়াই পা
আবারও মাড়াই আঁধার
আশে পাশে কেউ নেই দু হাত ধরিবার !!!


advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement