তখনও রসায়ন শাস্ত্রে আমার হাতেখড়ি হয়নি
তুমি প্রায় প্রায়ই বলতে, কথা আছে- কতো কথা;
ঈশ্বরের দিব্যি!
আমি ভেবেছিলাম, তুমি বলবে---
কার বাগানে কয়টা ফুল ফুটেছে
কার গাছে মৌমাছি বাসা বেঁধেছে
কার শরীরে ভূলতা জোড়া কামড় বসিয়েছে
ইত্যাদি – ইত্যাদি!!

বিশ্বাস করো, তখন আমার একবারও মনে হয়নি
তোমারও একটি লাবণ্যময় বাগান আছে
তোমার বাগানেও সাতরঙ ফুল ফুটে আছে
সেই বাগানে একজন মালীরও প্রয়োজন আছে!!


এখন আমি প্রায় প্রায় একলা কথা বলি
এখানে-ওখানে জোড়ায় জোড়ায় ধানশালিক দেখি
আমি রাত ডাকি, আমি চাঁদ ডাকি
এখন আর কেউ আমাকে বলে না
কথা আছে --- কতো কথা------
এখন আমার
সবচেয়ে বড়ো কথা, আমার নীল ডায়েরি আছে
এখন আমি রসায়ন বুঝি
এখন আমি ভালোবাসা খুঁজি-------------!!