নবান্ন আবহমান বাংলার একটি ঐতিহ্য।সোনালি ফসল ঘরে তোলার আনন্দের সাথে চলে পিঠা পায়েসের উৎসব ।কিন্তু আজকাল জনসংখ্যার চাপে ফসলি জমি যেমন কমে যাচ্ছে তেমনি ঘর বাড়ি রাস্তা ঘাট শিল্প কারখানায় ফসলি জমি ব্যপক হারে সংকোচিত হয়ে পড়ছে।যে জমিতে ফসল হবে সে জমিই যদি না থাকে কিংবা কলকারখানার বর্জ্যে রাসায়নিক বর্জ্যে যদি সেই যৎসামান্য জমি আবাদের অনুপযুক্ত হয়ে পড়ে তাহলে নবান্ন উৎসব হবে কি করে? প্রশ্ন রেখে গেলাম। আবার যে ফসল ফলে তাও যদি সুষম বন্টন হয় কিংবা কৃষক তার ন্যায্য পাওনা পেয়ে যায় এবং মধ্যস্বত্বভোগীদের অপতৎপরতা না থাকে তাহলেও সামান্য আশার আলো চোখে পড়ে।সেই আলোর খেয়ায় ভেসেই আমরা স্বপ্ন দেখতে পারি পৃথিবীর সকল কিনারায় নবান্ন হাসবে।সব ঘরে ঘরে ছড়িয়ে যাবে নবান্ন উৎসবের পয়গাম আর তাতেই অন্নহীন শিশুদের দুয়ার উচ্ছল হাসি আনন্দে ভরে যাবে ইনশাআল্লাহ।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২ জানুয়ারী ১৯৮৩
গল্প/কবিতা: ৩০টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - নবান্ন (অক্টোবর ২০১৯)

নবান্ন ছড়িয়ে যাক ঘরে ঘরে
নবান্ন

সংখ্যা

মাইনুল ইসলাম আলিফ

comment ৬  favorite ২  import_contacts ৫৯
হাতে নিয়ে সময়ের ফিতেটা
কিনেছি জীবনের ভিটে।
কোদালের ফলায় কর্ষিত জমিনে
রোপিত শস্যদানায় ফলেছে সোনার ফসল।
শুকরিয়া তোমার মেহেরবান।
বাড়ছে গতি মানুষের স্রোতে
হচ্ছে ভরাট ক্ষেতের শরীর
চলছে অবাধ শিল্পায়ন।
শিল্পের বর্জ্যে বাড়ছে দুষন
ঘোলাটে পানিতে অমিত রসায়ন।
কমছে জমি বাড়ছে সড়ক
ক্ষেত খামারি কাড়ি কাড়ি,
কমছে জমি বাড়ছে বাড়ি
ক্ষেতে ক্ষেতে লাগছে মড়ক।
কমছে মাটি বাড়ছে পুকুর
ইটের ভাটায় পুড়ছে দুপুর।
কেটে কেটে বৃক্ষ সব
কাঠুরিয়া আজ থাকছে নিরব।
তাই খরতায় পুড়ছে পৃথিবী শ্যামল
অতি বৃষ্টিতে নামে পাহাড়ি ঢল।
হায়! আক্ষেপে পুড়ি, ফসলে ফসলে আর ভরে না মাঠ।
শস্যদানায় আর ভরে না উঠোন।
হারিয়ে যাচ্ছে সোনালি ফসলের সোনালি সুদিন।
তবু যে ফসলে গোলা ভরে,
যে ফসল খলায় উড়ে ,
তার কিছু যেন ছড়িয়ে যায় দূর সীমানায়
নবান্ন হাসুক পৃথিবীর সব কূল কিনারায়।
নবান্ন ছড়িয়ে যাক ঘরে ঘরে
অন্নহীন শিশুদের দুয়ারে দুয়ারে।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement