কে অনির্বান

বন্ধু সংখ্যা

Muhammad Fazlul Amin Shohag
  • ২৫
  • 0
  • ১২
সেই পুরনো পথে হেটে যাওয়া, সেই পুরনো গান গাওয়া, সেই ফেলে আসা সম্পর্কের স্মৃতি আজও প্রশ্ন করে আমায় কে অনির্বান? তুই না আমি? সেই বিষন্ন ভাবনার ভোর, রোদে পুড়ে যাওয়া দুপুর, সেই স্বপ্নে ভরা গোধুলি সন্ধ্যা আর একাকী নিঘর্ুম রাত। বন্ধু সেই ফেলে আসা দিনের মতো আজ ও ভাবনা আর হতাশা আমার নিত্য সঙ্গি। নিজেকে বদলাতে বহু চেষ্টা করে ও পারিনি। এবং আজ ও হাল ছাড়িনি। বন্ধু তুই তো আমার স্বপ্নের কথা জানতিস। মাঝে মাঝে আমাকে নিয়ে ভবিষৎ বাণী ও করতিস। তুই খুব ভালো করেই জানতিস যে নচিকেতা আমার জীবনের সবচেয়ে প্রিয় মানুষ ছিল। আমার সমস্ত ভাবনা আর ভালবাসা ছিল নচিকেতাকে নিয়ে। তখন নচিকেতার গান শুনে আমি খুব আবেগী ছিলাম। তোর ছিল প্রখর বাস্তবতা। আমি সব সময় তোর আর আমার মাঝে অনির্বান কে খুজেঁ বেড়াতাম। কিন্তু তুই সে কথা জানতি না। আমার বর্তমান সফলতা বলতে ''রক্তে যাযাবর স্বপ্ন'' বইটা একুশে বই মেলাতে প্রকাশ করতে পারা। যেটা সামান্য হলে ও আমাকে লেখক পরিচিতি দিয়েছে। তুই জানিস আমি অনেক হারানোর পরেও আজও স্বপ্ন দেখি সুদিনের। ভেঙ্গে যাওয়া বন্ধুত্বের আজ দ্বীর্ঘ বিরতির পর তোর কাছে আমার প্রশ্ন কে অনির্বান? তুই না আমি?
ছায়াপথিকের এই কথা গুলো নিরবে দাড়িয়ে শুনলো দিগন্তের পথিক। সে যেন আজ পাঁচটি বছর পর থমকে দাড়ালো। কোন কথাই আসছে না তার মুখ থেকে। বিগত পাঁচ বছর আগে ছায়াপথিক এবং দিগন্তের পথিকের খুব ঘনিষ্ট বন্ধুত্ব ছিল। এক জন আরেক জনকে নিয়েই সারাদিনের বেশির ভাগ সময় কাটাত। দু জনই আবেগ এবং বাস্তবতার মুখোমুখি দাড়িয়ে স্বপ্ন দেখতো সোনালী ভবিষৎ-এর। কৈশরের পবিত্র মনের প্রেম, অতপর অভাবের কারনে ব্যার্থ হয়ে যাওয়া ভালবাসার বিরহ। প্রেমিকার কাছ থেকে পাওয়া অজস্র অপমান। বুকের জ্বালা সামলাতে তখন লুকিয়ে সিগেরেটে টান। প্রিয়া কে যাবে না পাওয়া, জেনে বুজে তবু ও তার পিছনেই ছুটে যাওয়া। তাকে নিয়ে লেখা গল্প কবিতা গান, আজ বহুদিন পরে ও দেয় পিছু টান।
প্রথম থেকে ছায়াপথিকের ছায়াসঙ্গি হয়েই ছিল দিগন্তের পথিক। কিন্তু পরবতীর্তে দু জনের পথ চলা হয়ে গেল দুই রকম। ছায়াসঙ্গি হয়ে গেল দিগন্তের পথিক। তাই আজ আর তাদের সেই বন্ধুত্ব নেই। তারা কেউ জানে না কারো মনের কথা। কারো অবস্থানই আজ ও পাকাপোক্ত নয়।
দিগন্তের পথিক কিছুটা স্বাভাবিক হয়ে বললো শিশির ভেজা প্রকৃতির শোভিত হৃদয়পট থেকে বৃষ্টি ভেজা পদ্মাসন করিয়া এই পবিত্র সম্পর্ক কল্পনার হাজারো রং দিয়ে ক্ষনজীবনের স্মৃতির ফোয়ারায় সপে দিলাম। আমি পথিক, পথ চলাই আমার কাজ। তাই পথেই আমার আবেগ, বিবেক, ভয় আর হতাশায় ঢাকা। আমি এক অভাগা। দিগন্তের সানি্নধ্য পাওয়ার আশায় কিছু কাল ধরে পথে পথে ঘুরছি। কিন্তু যতই এই পথে হেটেছি ততই ব্যার্থ হয়েছি। আমার কল্পনার আবেগ ক্রমাগত ধাবিত হয়েছে এক ভয়ংকর হতাশায়। ক্লান্তির কালো রং এই হৃদয়ে এমন ভাবে বসে গেছে সর্বহারা মানুষ ও এতটা কষ্ট পায় না। যতটা আমি পেয়েছি। অজানা ভবিষৎ এর কালো ছায়ায় ঢাকা এখন আমার হৃদয়। উচ্চাকাঙ্খার শিকড় বেধে আজ এই পথে অতিশয় বিষন্ন ভাবনায় আজ আমার এবং ছায়াপথের অবস্থান অনেকটা নেশায় ক্ষত হওয়া মনের প্রশন্নতার মতো। ছায়াপথকে নিয়ে মনের গোপন ঘরে যে পন করেছি তার বাস্তবতা এখন স্বপ্নেই খেলা করে। লালিত শাষন গুলো অর্নিবানের মতো হারিয়ে যায়।
আতি্নক সাধনায় নিজেকে সৃজনশীল করে ও এই পথের প্রশান্তি ধরে রাখতে পারিনি। তাই বিকশিত জীবনের পরাজয় এখন নিশ্চিত জেনে আমার পথ চলা এলোমেলো। যদি ছায়াপথিক অথবা দিগন্তের পথিকের জীবনটা সোনালী স্বপ্ন আর ভালবাসায় সাজানো গোছানো হতো তাহলে বলা যেত কে অর্নিবান !?
এখন ছায়াপথিক এবং দিগন্তের পথিক দু জনেই নিরব হয়ে গেল। চোখের সামনে ছায়াছবির মতো স্পষ্ট হয়ে ভেসে উঠছে ফেলে আসা স্বপ্নভরা অতীত গুলো। দূর আকাশে দক্ষিনা বাতাসের সাথে ফিরে আসছে নচিকেতার সেই চির চেনা প্রিয় সুর. ...............
সেই ফেলে আসা মেঠো পথের বাঁকে দু পায়ে ধুলো
আজও দাড়িয়ে সে ভাবছে কি হলো
তবে কি মিছে ছিল সেই দিন গুলো
সেই শেকল ভাঙ্গার গান
শোন তবে আজ চিরে ফেলেছি মনি মুক্তার সাজ
সাতটা সাগড় বুকে তুলছে আওয়াজ
নেমেছি পথে দু চোখে তে সন্ধান আমি আসিছি অনির্বান
আমি আসছি অনির্বান সে প্রশ্নের দিতে জবাব ।
সুখ আছে তোর চোখে তোর বুকে আমার এই গান
লা লা লা
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
Muhammad Fazlul Amin Shohag Ajo jani na ami k onirban
junaidal সেই শেকল ভাঙ্গার গান শোন তবে আজ চিরে ফেলেছি মনি মুক্তার সাজ সাতটা সাগড় বুকে তুলছে আওয়াজ নেমেছি পথে দু চোখে তে সন্ধান আমি আসিছি অনির্বান আমি আসছি অনির্বান সে প্রশ্নের দিতে জবাব । সুখ আছে তোর চোখে তোর বুকে আমার এই গান লা লা ল। ভাল হয়েছে।
খন্দকার নাহিদ হোসেন আমার কাছে তো লেখাটা বেশ লাগলো। আর পরিণত একটা লেখা।
রওশন জাহান লেখাটি পড়া শুরু করতেই চমকে উঠলাম , বুকের ভিতর অনির্বান জেগে উঠল এত বছর পর ! শুরুতেই মনে হচ্ছিল আমার বন্ধু অনির্বান লিখেছে বুঝি আমাকে মনে করে! আবার লেখকের নাম দেখছি বাধনঁ . সত্যি করে বল্ দেখি তুই কি ছদ্ম নামে লিখেছিস অনির্বান ? তা না হলে তো তোর আমার অনুভুতি অন্য কেউ এভাবে অনুভব করে প্রকাশ করতে পারতনা, যে প্রশ্ন আমি তোকে বা তুই আমাকে করবি তা তো এই লেখক জানতে পারতনা! আসলেই তুই আমার বন্ধু অনির্বান ?
মোঃ আক্তারুজ্জামান ভালো লাগলো তাই অনেক অনেক শুভেচ্ছা|
বিন আরফান. অনেক সুন্দর হয়েছে. চালিয়ে যান.
সূর্য কাব্যময়তা বেশ আছে তবে চরিত্রগুলো স্পষ্ট নয়। ভাল লাগতে লাগতেও একটা অপূর্ণতা থেক গেল।
Akther Hossain (আকাশ) সুন্ধর লিকেছেন!
Muhammad Fazlul Amin Shohag Thanks a Lot Everybody For Those Command

০১ ফেব্রুয়ারী - ২০১১ গল্প/কবিতা: ৪ টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের আংশিক অথবা কোন সম্পাদনা ছাড়াই প্রকাশিত এবং গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী থাকবে না। লেখকই সব দায়ভার বহন করতে বাধ্য থাকবে।

প্রতি মাসেই পুরস্কার

বিচারক ও পাঠকদের ভোটে সেরা ৩টি গল্প ও ৩টি কবিতা পুরস্কার পাবে।

লেখা প্রতিযোগিতায় আপনিও লিখুন

  • প্রথম পুরস্কার ১৫০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • ্বিতীয় পুরস্কার ১০০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • তৃতীয় পুরস্কার সনদপত্র।

আগামী সংখ্যার বিষয়

গল্পের বিষয় "ভয়”
কবিতার বিষয় "আঁধার”
লেখা জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২৫ আগষ্ট,২০২১