অন্ধকার আসেনি কভু নিকষ আঁধারে
আলো দেয়নি দেখা নিরন্তর প্রদীপের পথে
তবু হারানো পথে শূন্যতায় ডেকে ওঠে শালিকের ঝাঁক
সফেদ শঙ্খচিল উড়ায় স্বপ্ন কেতন।

ল্যাম্পপোষ্টের আলোয় মুগ্ধতা
রাতের মৌনতায়
নিঃস্বার্থ ভালোবাসার বিকেল কখনো আসেনি
তবু ভাসিয়েছি আফ্রোদিতির পানে ঠিকানাহীন নাওয়ের ভাসান।

অবশেষে একদিন
মৌনমুখর সন্ধ্যাটাকে দিয়ে ছুটি
শূন্য হাতে এলে তুমি বারান্দাতে
দিলে তুমি আমার প্রানে তোমার পরশ
উঠলে কেঁদে হু হু করে অন্ধকারে
পথ হারানো পথিক যেন ফিরছে নীড়ে।

স্তব্ধ আমি! হারিয়েছি ভাষা
চোখে অবিনাশী ঢোল
বাম হাতে টুটি তুলে ধরে
অপার নয়নে যা দেখলাম...
এমন অন্ধকারের আলো জীবনে কেউ কখনো দেখেনি!