পাশের বাড়ির ভেলু ফুফু বয়স ষাটের কাছে
চলন বলন সরল সোজা সব মানুষের কাছে।
দিন অবধি কাজ করে সে নেইকো দেহের টান
সবার কাজেই দেয় সাড়া সে ‍ভুলে নিজের মান।
কখনো কেউ বকা দিলে ফেল ফেলিয়ে হাসে
বলতে শুনি, ”বকা দিছে আমায় ভালবেসে”।
নিজের ঘরে রান্না নেই তো পাশের বাড়িত গিয়ে
খাবার দাবার খেয়ে আসে কাজের বিনিময়ে।
সব মানুষই আপন তাহার মানুষও তাই ভাবে
ভাল মন্দ যে যাই করুক তাকে দিয়েই খাবে।
সরল মনের মনটাতে তার নেইকো ভাবের লেশ
পরের উপকারেই তাহার জীবন করছে শেষ।
ভেলু ফুফুর ভালবাসায় নেইকো ছলের রস
এই কারনে সবাই তারে মানিয়াছে বশ।
এমন সরল এই জগতে দেখিইনাকো আজ
বেঁচে থাকুক সবার মাঝে হয়ে মাথার তাজ।