সন্ধ্যা হলে শিয়াল ডাকে
মোদের গাঁয়ের বাঁকে,
মিটমিটিয়ে জোঁনাক জ্বলে
বাঁশ বাগানের ফাঁকে।

ভোর বেলাতে পাখপাখালি
গাছের ডালে ডাকে,
কিচিরমিচির ডাক শুনতে
মনটা পড়ে থাকে।

বেহানেতে সূয্যি মামা
গাল ফুলিয়ে ওঠে,
ঝিলের জলে রোজ সকালে
শাপলা শালুক ফোটে।

ফজরের ঐ আযান শুনে
গাঁয়ের মানুষ ওঠে,
লাঙল জোয়াল কাঁধে নিয়ে
মাঠের পানে ছোটে।

সূর্য ডুবা দেখে কৃষাণ
বাড়ির পথটি ধরে,
বউ ঝিয়েরা সাঁঝের বেলা
প্রদীপ জ্বালে ঘরে,

দোয়া করি গ্রামটি হেন
আজীবনই থাকে,
মরতে হলে মরি যেন
মোদের গাঁয়ের বাঁকে।