"মেঘবালিকা,
কেমন আছো অচেনা আকাশে?"
খুব চেনা সেই কণ্ঠ শুনে মেয়েটি ভূলে যায়
সে এখন আর কোন নক্ষত্রবালকের
প্রেমের গল্পের মুগ্ধ পাঠিকা নয়!
সে এখন ভারী গহনায় মোড়ানো
সুখী গৃহিনীর খোলসে বন্দী ক্লান্ত নারী..
বহুদিন আগে ফেলে আসা এক জীবনে
মেয়েটি বেঁচেছিলো নক্ষত্রবালকের নিজস্ব আকাশে
আদিগন্ত মেঘবালিকা হয়ে!
তারপর তারপর..
বোকা বালক বালিকার রূপকথা বিসর্জন দিয়ে
তারা দুজন হারিয়ে যায় জীবনের ব্যস্ততায়!
সাত পাঁচ না ভেবে মেয়েটি সামলে নেয় হৃদয়কে..
মুছে ফেলে চেহারায় ফুটে ওঠা ক্ষনিক বিরহ!
ঘুরে দাঁড়ায় সাবলীলতার অভিনয়ে..
হৃদয়ের গহীনে থাকা পুরোনো আবেগ
আজীবন বিসর্জন দিয়ে বলে,
আপনাকে তো ঠিক চিনতে পারলাম না...!