চন্দ্রপ্রভা ভাসল কেন, চন্দ্রপ্রভা?
বেতসবনে রূপেরচ্ছ্বটা গড়ায় কেন?
আঁধার রাতে নদীর ঠোঁটে সুরের সভা
উথলে উঠে-ভাঙল কেন নিজের এহেন
কার্যকলাপ?
এখন বিলাপ!

চন্দ্রপ্রভা ঝড়ল কেন একলা এত?
বুকের ভেতর বিবেকখানি আবেগভরা,
জোৎস্না দেখে দুয়ার খুলে পড়ল ধরা
ঘোরের মাঝে; সেই কি তবে খুঁজলে পেত
মনের খোরাক?
তাই হতবাক!

সেই কথা কই; চন্দ্রপ্রভা অহংকারী
নারীর দেহে লুকিয়ে সে খুব স্বপ্নচারী;
কবির হাতের শব্দাবলী শিল্প গড়ে,
নারীই বুঝি শিল্পখানি আগলে ধরে
প্রেমের মোহ?
সত্যাগ্রহ!

চন্দ্রপ্রভার হৃদয়টি খুব স্বপ্নে ভরা
জোৎস্না রাতের গল্প দিয়ে ললাট গড়া;
তাই বুঝি সে চুপটি করে নিঝুম ক্ষণে,
স্বত্ত্ব বিকোয় ভরজোয়ারী বেতসবনে!
চন্দ্রপ্রভা-
শিল্পশোভা!