ব্যবধান

ক্ষুধা সংখ্যা

জনী চৌধুরী
  • ১০০
  • 0
নিবৃত হোক , তুচ্ছ লোকের,
ক্ষুধার আকুল যন্ত্রণা;
এই সমাজের উচ্চ শ্রেণী,
কখনো তা চাইবে না।

থাকবো মোরা মত্ত শুধু,
ভোগ-বিলাসের মন্ত্রণায়;
অন্যদিকে না খেয়ে আজ,
অনাহারি যন্ত্রণায়।

তুচ্ছ বলে তাইতো তাঁরা,
থাকবে অনেক পিছু;
চায়বে তাঁরা অনেক,
তবে, পাবেনাতো কিছু।

ঐ শিশুটির ক্রন্দন-ধ্বনি,
শুনবে না আজ কেহ;
ধূলোয় মাখা, যে শিশুটির,
রুগ্ন-নগ্ন দেহ।

শীতের কাপড় হয়না অভাব,
ধনীর দুলাল যারা;
কাপড়…? সেতো অনেক কিছু,
যারা বস্ত্র-হারা।

ছয়টা ঋতু বুঝবে তাঁরা,
সকাল দুপুর সাঝে;
ছয়টা মিলে এক ঋতু আজ,
চারটা দেয়াল মাঝে।

তাঁরা যখন অনাহারে,
মরছে ধুঁকে ধুঁকে;
ধনীর দুলাল মায়ের হাতেও,
নিচ্ছে না ভাত মুখে।

আরাম-আয়েশ করতে মোদের,
হয়না অভাব টাকা;
ছিন্নমূলে অন্ন দিতে,
থাকবে পকেট ফাঁকা।

এতোই সুখে থাকি মোরা,
ভাবিনা পরের জন্য;
অহংকারে অন্যদের আজ,
করিনাতো গন্য।

ভাবিনা কেউ স্বার্থ ছাড়া,
আমরা, তাদের জন্য;
নামটা মোদের মানুষ হলেও,
আমরা নর-ঘৃন্য।

ভাববো যখন তাদের জন্য,
সবাই একই সাথে;
দারিদ্রতার মাত্রা তখন,
কমবে অনুপাতে।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
নিরব নিশাচর ................................. জনী, চমত্কার বার্তা দিয়েছ তোমার কবিতায়... চমত্কার ! চমত্কার... যাও, ৪/৫ পেয়ে গেলে তুমি...
নিলাঞ্জনা নীল ছন্দে ছন্দে সুন্দর লিখলেন তাতে যদি সমাজের মানুষের মানুষিকতার পরিবর্তন হয়...
মনির মুকুল মন্তব্যে উৎসাহ বা প্রেরণা সূচক কথা বলা এক জিনিস আর শুধু গুনগান করে যাওয়া আরেক জিনিস। শ্রেফ গুনগানে একটু উদ্দেশ্যও থাকে, সেদিকে নাই বা গেলাম। এই লেখার প্রায় সব মন্তব্যগুলো পড়লাম। শুধু প্রশংসা ছাড়া তেমন কিছুই পেলাম না। অথচ লেখাটার মধ্যে বড় ধরণের অসঙ্গতি আছে। সেগুলো তুলে ধরলে লেখকের লেখনীতে আরও মনোযোগী মনোভাব আসবে বলে মনে করি। ছন্দবদ্ধ কবিতা বলে আখ্যায়িত করা হলেও অহরহ ছন্দপতন আছে লেখাটায়। প্রথম চার লাইন ও দ্বিতীয় চার লাইন (৮+৭) একই ধারায় গেলেও পরবর্তী স্তবক থেকে মাত্রা ওঠা-পড়া শুরু করেছে, যা ‘ছন্দবদ্ধ’ শব্দটাকে অক্ষত রাখতে সক্ষম হয়নি। কিছু কিছু শব্দের কারণে পঠনরীতির গতি সৌন্দর্যও হারিয়েছে। যেমন: ১২তম চরণে ‘তবে পারে নাতো’, ৩৪তম চরণে ‘ভাবিনা’,। ৪৩তম চরণে ‘দারিদ্রতার’ শব্দটা ঠিক নয়। এই ভুলটা অনেকেই করে। শব্দটা হবে দারিদ্র/দরিদ্রতা। তবে অন্ত্যমিলগুলো যথেষ্ট সুন্দর। বর্ণনার ধারাবাহিকতাও ভালো। একটু মনোযোগী হলে আরো সুন্দর সুন্দর লেখা পাবো আশা রাখি। অনেক অনেক শুভকামনা রইল।
ম্যারিনা নাসরিন সীমা এই প্রথম তোমার কবিতা পড়লাম ছন্দে ছন্দে আমার মনের কথা বলে গেলে খুব ভাল লাগলো ।শুভ কামনা রইল ।
Azaha Sultan জনী, একেবারে ননির হাতের লেখা বলা যায়...অনেক সুন্দর.....ধন্যবাদ
রনীল অন্তমিলের কাজটি বেশ সুচারু হয়েছে, কবিতায় ধনীদের অহেতুক ভোগবিলাস আর সর্বহারার না খেয়ে থাকার বিষয়টি বেশ শিল্পিতভাবে তুলে ধরেছেন। নজরুলের অনুরাগীর কবিতায় বিদ্রোহের সুর শুনে বেশ ভালো লাগলো।
আফরোজা চমৎকার লাগলো আপনার কবিতা । শুভ কামনা ............
জনী চৌধুরী নাজমা অপ, অনেক ধন্যবাদ...
জনী চৌধুরী আরিফ ভাই, ধন্যবাদ...
জনী চৌধুরী সোশাসি, ধন্যবাদ...

০৩ জুন - ২০১১ গল্প/কবিতা: ১ টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের আংশিক অথবা কোন সম্পাদনা ছাড়াই প্রকাশিত এবং গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী থাকবে না। লেখকই সব দায়ভার বহন করতে বাধ্য থাকবে।

প্রতি মাসেই পুরস্কার

বিচারক ও পাঠকদের ভোটে সেরা ৩টি গল্প ও ৩টি কবিতা পুরস্কার পাবে।

লেখা প্রতিযোগিতায় আপনিও লিখুন

  • প্রথম পুরস্কার ১৫০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • ্বিতীয় পুরস্কার ১০০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • তৃতীয় পুরস্কার সনদপত্র।

বিজ্ঞপ্তি

“অক্টোবর ২০২১” সংখ্যার জন্য গল্প/কবিতা প্রদানের সময় শেষ। আপনাদের পাঠানো গল্প/কবিতা গুলো রিভিউ হচ্ছে। ১ অক্টোবর, ২০২১ থেকে গল্প/কবিতা গুলো ভোটের জন্য উন্মুক্ত করা হবে এবং আগামি সংখ্যার বিষয় জানিয়ে দেয়া হবে।

প্রতিযোগিতার নিয়মাবলী