নিঃস্বার্থ ভালোবাসার প্রতিকৃত তুমি বাবা,
শ্রদ্ধা জানাই কেবল তোমায় অগনিত।
পরম স্নেহ-আদরে আগলে রাখো আমৃত্যু,
বুঝতে দাওনি কভু তোমার হৃদয়ের ক্ষত।

বাবা তোমার হাতটি ধরে হেঁটেছি বহু পথ,
চলতি পথে ক্লান্ত হলে আমায় কাঁধে তুলে নিতে।
রোজ বিহানে বাজার হতে আনতে হরেক খাবার,
পরম আদরে কাছে ডেকে হাতটি আমার ভরে দিতে।

দিন-রাত্রী তুমি করো শ্রম আমাদের লাগি,
মনে রয় তোমার দৃপ্ত প্রত্যয় উন্নতি ভবিষ্যতে।
তোমারে হেরি আজও বাবা স্মৃতির কালে,
তুমি বীণা এ মনটা পারেনা কিছু ভাবিতে।

শৈশবের মধুমাখা সুখস্মৃতি তোমার সহচর্যে,
অনুভবে আজও মিশে আছো অনুভূতিতে।
তোমার আদর আর তোমার শাসন আমায়,
করেছে যোগ্য মানুষ রূপে এ সংসারে জগতে।

তোমার কথা পড়লে মনে আজও,
এখনো সুখের কাঁপন ছড়ায়ে।
বিপদে-আপদে আছো তুমি আজও,
পরম সুখের ছায়া হয়ে।