তুমি এসেছিলে বসন্তে
দখিনা বাতাস হয়ে
তুমি ঝরে গেলে শীতে
ঝরা পাতা হয়ে
তুমি এসেছিলে গ্রীষ্মে
বৈশাখী ঝড় হয়ে
তুমি ঝরে গেলে বর্ষায়
অঝর বৃষ্টি হয়ে
তুমি এসেছিলে শরতে
স্নিগ্ধ জ্যোৎস্না হয়ে
তুমি হারিয়ে গেলে হেমন্তে
ধানের মেটাল গন্ধ হয়ে
চারপাশে হাতরে বেড়ায় ভেবে
পাব তোমায় আমার করে
খুঁজে-খুঁজে পাই তোমায়
দু চোখের কনে
তবু সেখান থেকে তুমি
অশ্রু হয়ে যাও যে ঝরে
তোমাকে খুঁজে পাই রাতের
তারে-তারে
জানিনা কেন তোমার ছবি
সেই অধেরে হারায়
আমি আছি এই নির্জনে বসে
ভাবছি তোমার কথা
তুমি কেন যে আসনা?
আসে ভেঙ্গে দাও নীরবতা