হে আমার প্রিয় স্বদেশ,
তুমি দূর্বাঘাসে; সবুজ বাঁশে; লাল-সবুজের উড়ন্ত পতাকা তলে,
ঠাঁই দিয়েছ, দিয়েছ মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার স্নেহ-আশীষ,
আমি পরম আনন্দ বুকে ধরে, শিশির ধোয়া ভুমি পরে, দোয়েল শিসে তুলেছি শিস।

দোয়েলের শিস থামে কি শীতের সাঁঝে? শিউলিফুলের ঝরে পড়া উঠোন মাঝে, মাতাল বন সৌরভে
মাতাল সৌরভে জীবন ধন্য, স্বাধীন প্রাণ সুখে গণ্য, মন নাচে তাই বিশ্বজোড়া গৌরবে!
গৌরবের খুশিতে তরু, ফুলে-ফলে উড়ু-উড়ু, বসন্তে প্রাণ ছুঁয়ে যাওয়া বাউল গানে
বাউল গানে ভ্রমর উড়ে, মধু মুড়ে ফুল ছুঁয়ে, ব্যাকুল হাওয়ায় ভেসে যাওয়া মন পবনে।
মন পবনে শিয়াল ডাকা সাঁঝ নামে, ধুরু-ধুরু বুকে ভয়কি থামে, মনের দুয়ারে ভয়ের কল্পকথা!
কল্পকথা হারিয়েছে আজ বিজ্ঞানলোকে? সকল আশার ঘর ভেঙ্গেছে তারি শোকে? শোকে ভাঙ্গা সুখের জীবনপ্রথা।
জীবনপ্রথা কৈ চলেছে কে জানে, নতুন জীবনের বান ডেকেছে উজানে, সবাই আজ নতুন স্বপ্নস্রোতে!
স্বপ্নস্রোতে আমাদের আজ পথচলা, জানতে চাইনা বাড়বে কি তাতে জ্বালা, সুখী আমরা নতুন বানের তটে।
তটের পথ হয়নি আজ অধ্যুষিত? হয়নি আজ স্বাধীনশিখা তর্কযুক্ত? স্বাধীনতার সুর কি তবে বীষময়?
বীষের যাতনা ফোঁটে কি আজ স্বাধীনসুখে! এইকি সুখ জমানো আছে এই বুকে! স্বাধীনতার মানেতে তাই এত ভয়।
ভয় তাই; একদিন যারা স্বাধীনতার গৌরব ছুঁয়ে, দিয়েছে রক্তে মাটি ধুয়ে, তাঁদের সম্মানে শুনি বাজছে রঙ্গরসের গান!
বাংলায় যাদের ছিলনা স্থান, যাদের হীনতায় হারালো লক্ষ প্রান, তারা আজ পাচ্ছে বাংলায় বীরের সন্মান!
আজকের দেশপ্রেমিদের দেশপ্রেমে, বলে যাই আপন মনে, কিছু পাগলের প্রলাপ
প্রলাপের সুর নয় বড়, ভয়ের তীব্রতায় জড়সড়, ভাবি না কোন পূর্ণ-পাপ।
শুধু বিহানবেলায় যখন আমার ঘুম ভাঙ্গে, চেয়ে থাকি আকাশের ঐ লাল রঙ্গে, বলে চলি ওগো আমার লালরংগা সূর্যের স্বদেশ
এখন স্বাধীনতায় নেই সুখ, দেখ নয়ন জড়িয়ে আছে দুখ, বাংলার পথে-পথে জড়ানো দুঃখ-ক্লেশ।

জীবনের পথভুলে, বলে যাই আপন খেয়ালে,
স্বদেশ, সত্যি যদি তোমার আলো-বাতাসে জড়ানো থাকে এই প্রান, হয় হৃদয়-দেহ তোমার অবদান
তবে জেনো; বলছি তোমায়, আজ স্বাধীনতার অধ্যুষিতদের হাতে, হয়েছ তুমি অধ্যুষিত-কলঙ্কিত
সেই কলঙ্কের দায়ে, মন হারায় অজ্ঞতার নায়ে, করে হৃদয় ক্ষত-বিক্ষত।
আজ কাপুরুষ চিত্তে তাই পৃথিবী জুড়ে তোমার ঘৃণার দুঃখ-যন্ত্রণা হতে, মুক্ত হতে চাই আমি, মুক্তি চাই আমি
যদি মুক্তি মিলে মৃত্যু আলিঙ্গনে, মৃত্যুর চরণে নমি,
তবু; তোমার কলঙ্কিতরূপ দেখতে চাই না আমি, তোমার কলঙ্ক মুখ বুজে সইতে পারছি না আমি
প্রয়োজনে হোক বিদায়, হে আমার প্রিয় স্বদেশ, প্রিয় জন্মভুমি।