আমায় বলতে বলোনা।
আমি যদি বলা শুরু করি
তবে জেনো বাঁধ ভেঙ্গে যাবে।
বন্যার তোড়ের আদলে বেড়িয়ে আসবে
অজস্র কথার কল্লোল।
নিরেট আঘাতে টলে যাবে
তোমার অটল আসন।
তুমি থই পাবে না।
তোমার অস্থির নিঃশ্বাসে কাঁপছে বাতাস।
বুকের পাজরে তোমার অতৃপ্ত বাসনা।
নাঙ্গা হাতে তুমি ধরে আছো
সীমাহীন লিপ্সার অসামান্য লাগাম।
অশান্ত মাটিতে তোমার অহংকারী পদচিহ্ন
রেখে যায় রক্তাক্ত স্বাক্ষর।
প্রবল একটা ঝড়ের তাড়না
এখন আমারো প্রয়োজন।
হতাশার পদভারে আমি ক্লান্ত।
আমার আপন আলয়ে
তোমার স্বেচ্ছাচারী বসবাস
ক্রমশ: টেনে নেয় আমায়
নিকষ মৃত্যুর শিয়রে।
তাইতো বলতে ভয় হয়।
তোমায় বলবো বলেই-
এই উষ্ণ মাটির পরশ ছেড়ে
মায়ের কোমল আঁচল ছিঁড়ে
বুকের উপর রক্ত লাল দাগ নিয়ে
আমি যদি আমাকে হারাই।
(৭১ এর আত্মত্যাগকারীদের স্মরণে)