এক শ্রাবণ সন্ধায় নদীরদারে সময় কাটাতে যাই
ক্ষুধার জালায় কাতরাচ্ছে এমন একজনকে দেখতে পাই
বিধাতার কি অপরুপ খেলা
তাহার আপনজন করিলো তাকে অবহেলা
দেখতে দেখতে চলেগেল অনেক বেলা।
ক্ষুধার জন্য চুরি-ঢাকাতি,ক্ষুধার জন্য কাজ,
ক্ষুধা শেষ হলেই শুরু হয় মোদের নানান রকম সাজ।
সুন্দর জীবন গড়ার জন্য করতে হবে অনেক কিছু
কাজের সময় মাঝে মধ্যে ক্ষুধাকে নিই ইসু।
সন্ধ্যা বেলায় জোনাকির আলো জ্বলে মিটি মিটি
হঠাৎ করে মনে পড়ে যায় ছোট বেলার স্মৃতি।
ফুলের সুবাসে ভোরের আলোতে মৌমাচি করে গান
ক্ষুধার্থের মাঝে দিশেহারা হয়ে ফুলের মধু করে পান।