মাগো কত দিন মায়াহীন এই পাথুরে শহরে
পল্লী গাঁয়ের নীরবতা ভুলে
চলছি পথ হিংস্র মানবতার সাথে।
মাগো অশ্রুজলে বুক ভাসাই গভীর রাতে
মাগো আজ কত দিন শোন হয়নি অর্ধ রাতে
ডাহুক আর শিয়ালের আনন্দ মিছিল,
ঘরের পিছে ভুতম প্যাঁচা কিম্বা নির্জন ভিটায় নিঃসঙ্গ ঘুঘু'র ডাক।
মাগো কত দিন গায়ে মাখিনি ঐ পুবের মাঠের যৌবনা দূর্বা ঘাসের আদর ,
হলুদ শাড়ী পরা কিশোরী কন্যার মত শর্ষের ক্ষেত ।
মাগো কতদিন হয়নি যাওয়া মণ্ডল বাড়ীর যাত্রা আর কীর্তন গানের আসরে।

মাগো কত দিন, আর কতদিন থাকতে হবে এই নরকের মতো নর-পিশাচের
শহরে?
মাগো আর কতদিন দেখতে হবে আমাকে
ষোড়শী কন্যার অর্ধনগ্ন দেহ, উন্মুক্ত বুকের বেসামাল মাংস পেশী?
মাগো আর কত নীরবে দেখব সইব অসহায় শ্রমিকের ঝুলন্ত লাসের দৃশ্য,
এদেশে আর কত একুশে আগস্ট চিত্রিত করবে ছিন্ন-ভিন্ন লাসের ছবি,
রক্তস্নাত পয়লা বৈশাখ?