যেই মা কত কষ্ট নিয়ে
এই পৃথিবীর বুকে,
করেছে লালন ধীরে ধীরে
ক্ষুধায় ধুকে ধুকে।

সেই মাকে আজ পারছি না তো
একটু আরাম দিতে,
আহা কেমন আমি কেমন ছেলে
জন্ম আমার বৃথা।

মা যে আমার রোগের ব্যথায়
চোখ বোজে না রাতে,
কেমন করে ঘুমায় আমি
লজ্জা কী পায় তাতে।

মা যে কত খাইয়ে দিতো
আমার অসুখ হলে,
তার অসুখে এক বেলা কী
খাইয়েছি গালে তুলে।

কেমন আমি অবুঝ বোকা
কেমন আমার মন,
মায়ের খুশি করতে কেন
করলাম না তো পণ।

যদিও আমি এমন ছেলে
তবুও মায়ের কাছে,

হিরার চেয়ে আমিই দামী
বুক ভরে মা হাসে।

হায়রে এমন মা যদি আজ
কষ্টে করে বাস,
কেমন করে হাসছে আমি
গলায় পরে ফাঁস।