শ্রাবণ আকাশে ব’সে মেঘের মেলা,
সারাবেলা তরঙ্গমালা করে খেলা
নারকেল সুপুরি পাতায়; তারপর
ঢেকে রাখে নক্ষত্রটারে ঘনশ্যাম।
ফিরে আসে অবিরাম ধারা, ঝর ঝর
ঝ’রে পড়ে তপ্ত সমীরের বুকে হেম
হ’য়ে ফেরে শ্রাবণাশ্র, একাকিনী;
ক’রে দেয় তোমাকে আমার যামিনী।