তোমার দৃষ্টি সরিয়ে নাও আমার দৃষ্টি থেকে
বড় কষ্ট হয় ।
সরিয়ে ফেল তোমার দীর্ঘ কালো ছায়া
বড় ঘৃণা হয় ।
আমার হৃদয় থেকে তোমার হৃদয় হটাও
আমি কাঁদব না ।

কষ্টের রঙ কি , বলতে পার ?
নীল ,বেগুনী নাকি কৃষ্ণ কালো ?
আমি জানিনা ।

আমার কষ্ট হয় ,
যখন দেখি তোমার চোখে বাসনার রঙ্গিন আবাহন
আর সর্পিল জিহবার নড়াচড়া ।
আমার কষ্ট হয় ,
জননী রূপি বৃদ্ধা যখন বড় ক্লেশে হাত পাতে দ্বারে দ্বারে
মাগো একটু ভিক্ষা দাও ।
আমার ভীষণ কষ্ট লাগে ,
একদা পাড়ার সুবোধ ছেলেটি যখন নেশায় বুঁদ হয়ে ঘরে ফেরে
কোন এক সর্বনাশা রাতে ।

তুমি কি শুনেছ কখনো
সন্তান হারা মায়ের শূন্য বুকের বিবশ আকুতি ?
শুনেছ কি ?
সব হারানো কোনো সর্বহারার করুণ আর্তনাদ ?
কিংবা দেখেছ কখনো ,
পুত্রের লাশ কাঁধে অসহায় পিতার নিরব অশ্রুপাত ?
কখনো দেখেছ কি ,
কোন এক দুলালীর খুবলে খাওয়া নিথর দেহ ?

নিশ্চয় দেখনি ।
যদি দেখতে ; তবে তোমার ঐ দৃষ্টিতে আজ আমার সর্বনাশ নয়
থাকতো ভালবাসার নির্মল আহ্বান ।

তাকিয়ে দেখ নিবিড় পল্লব ঘেরা গহীন অরণ্যে
যেখানে কেবল সবুজ আর সবুজ ।
তাকাও দেখি দূর ছায়ালোকে
কোথাও মেঘ নেই ,শুধু অরঞ্জিত আর নীলিমায় মাখামাখি।

পারবে তুমি , হৃদয়ের গভীরে আকাশ ধরতে ?
পারবে বল ,দুনয়নে তোমার বিশাল অরণ্যের ছবি আঁকতে ?
লিখবে বল ,মানবতার ইতিহাস জনম ভরে ?

যদি পার ,তবে এসো
দৃষ্টি রাখো আমার দৃষ্টিতে ।
তোমার হৃদয়কে সমর্পণ করো আমার হৃদয়ে ।
কথা দিলাম কষ্টে নয়,
আমি সানন্দে সমর্পিত হব তোমাতে ।