শুনো প্রিয়, চাইলেই ছেড়ে চলে যাওয়া যায় না
কত যুগ ধরে মুখোমুখি বসে আছি
ব্যথার নদীর উথাল পাথাল ঢেউয়ের মাঝে,
কত নৌকা ছলাৎ ছলাৎ করে ভেসে গেলো
বিধ্বস্ত আমি বিধ্বস্ত তুমি
তবুও বসে থাকি ঠাঁয়।
কেউ বসে নেই তোমার জন্য কিংবা
আমার জন্য নৈবেদ্য সাজিয়ে।

তোমার কি সাধ আছে ছেড়ে যাওয়ার?
তবে কেনো কথা উছলিয়ে দাও ব্যথা!
সময়গুলোকে করো নিষ্পন্দ!
আকণ্ঠ নিসিন্দায় ছেঁয়ে যায়।
তোমার ইচ্ছে তুমি চলে যাও.....
হাজার ব্যস্ততার ভীড়ে আমি দরজার ওপাশ থেকে
তোমায় বার্তা পাঠাবো
একদিন ভালবাসা হবে প্রতিভাস।

একদিন দেখো, গ্রীষ্মের আকাশে খেলা করবে ধবল মেঘ
শরতের কাশফুল উড়বে বৈশাখের আকাশে
হেমন্তের শিউলী ফুল বসন্তে হাসবে সবুজ ঘাসে
ছাতিমের নেশা লাগা ঘ্রানে মাতাল হবো তুমি আমি
দু'চোখে প্রচণ্ড ভালবাসার আকূতি নিয়ে
চৈত্রের নদীতে বইবে প্লাবন
শীতের আকাশ হতে অঝোরে ঝরবে বৃষ্টি....
সে দিন সব দ্বিধাদ্বন্দ্ব ছুঁড়ে ফেলে....এসো প্রিয়
এখানেই...
বুকের অথৈ ভালবাসার সাগর কিংবা নদীতে
তুমি আমি মন নদীতে ঢেউয়ে ঢেউয়ে বৈঠা বাইবো
ডিঙি নৌকা ভেসে চলবে ভালবাসার অনন্ত সাগরে।