রাক্ষসপুরী

মুক্তির চেতনা সংখ্যা

খন্দকার নাহিদ হোসেন
মোট ভোট ১০৬ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৫.২
  • ৬০
ভস্মে লুকানো ঘূর্ণিবায়ুর সোমত্ত হৃদয়
লেখার বান তুলে এনে দেয় কালির ওম
সাধনায় জাগে- উন্মত্ত শব্দের বেলাজ লিপ্সা!

পিচ্ছিল দোষেই নিষিদ্ধ চৌকাঠে ব্যক্তিগত মঞ্চ
দাড়ি হসন্ত কোলন বর্ণের প্রলম্বিত মুক্তিতে
ভেংচি কাটে মা কালির জিভ অপাঠক মূর্তিতে...
কষ্ট হয়; জানালায় আটকে থাকে ডানা
বোধের বুদ্বুদে ফোটে অন্ধকার-নীল মানা।

পাঁচ টাকার কলমের কাছে এক টাকার পৃষ্ঠায়
এক রাজকুমারী ঘুমিয়ে থাকে ঠোঁট ফুলিয়ে
রাক্ষসের ঘর- রাক্ষসপুরী!

তবু চেতনা ফিসফিসায়; নষ্ট শসার পাশেই
জাগে মুক্তির ঘাসফুল আশা-
“অনন্তকালের পায়ে মৃত পড়ে থাক প্রাণ ভোমরা
রাজকুমারী জেগে চোখে রাখুক চোখ
দিক অর্ঘ্য- এক ক্লান্ত হৃদয়ে!”
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
খোন্দকার শাহিদুল হক প্রিয় খোন্দকার নাহিদ হোসাইন ভাই, অভিনন্দন রইল। কবিতা বেশ সুন্দর হয়েছে। এই বিজয়ের মথ্য দিয়ে আপনার আগামীর পথ চলা সাবলিল হোক এই প্রত্যাশা রইল।
তানি হক অনেক অনেক সুভেচ্ছা প্রিয় ভাইকে ....
খন্দকার নাহিদ হোসেন সবাইকে ভালোবাসার জন্য কৃতজ্ঞতা ও অনেক ধন্যবাদ।
আহমেদ সাবের অভিনন্দন নাহিদ ।
ম্যারিনা নাসরিন সীমা বিজয়ী অভিনন্দন নাহিদ !
sakil বিজয়ের জন্য অনেক অনেক অভিনন্দন এবং অনেক শুভকামনা
সালেহ মাহমুদ অভিনন্দন নাহিদ। খুব ভালো লাগলো।
মৃন্ময় মিজান কবিতা ভাল লাগল। শুধু ভাল নয় অনেক ....। বুঝে নিয়েছি আমার মত করেই। আমার খুবই খারাপ লাগে যখন দেখি কবিকে কবিতার পাদটিকা লিখতে হয়। সব স্পষ্ট করে যদি বলতেই হয় তবে তো গল্প বা লেখার অন্যান্য মাধ্যম রয়েইছে -কবিতা কেন ? আর হ্যাঁ দুর্বোধ্যতার দোষে একে দুষ্ট বলতে রাজী নই আমি। আমি বরং বলতে চাই ভাবনার খোরাক জোগায় এমন কবিতা এটি।
খন্দকার নাহিদ হোসেন মিজান ভাই, পাদটীকা লিখতে আমিও বড্ড বিরক্ত হই...... আর এটাও জানি এখানের অনেক পাঠকই কঠিন কবিতা কাকে বলে ও কত প্রকার সেটা জানার জন্য নতুন কোন কবির কবিতার বই কিনতে নারাজ! তো বিনা দোষেই এ অভিযোগ মেনে নিয়েছি! আর ভালোবাসার দাবিতেই পাদটীকা দেওয়া। ও কবিতা ভালো লেগেছে জেনে ভালো লাগলো। ভীষণ ভালো থাকুন।
রনীল কবিতাটি আগে একবার পড়েছিলাম। দুর্বোধ্য মনে হওয়ায় কমেন্ট করিনি। আজ আবার পড়লাম, সাথে কমেন্ট গুলোও... এখন থিমটা ধরতে পেরেছি কিছুটা। খন্দকার সাহেব- আপনাকে আরেক দফা লাল সেলাম...
রোদেলা শিশির (লাইজু মনি ) জাগে মুক্তির ঘাসফুল আশা ....! জাগতেই হবে .... ! কিন্তু রাজকুমারী তো আর বন্দী নেই রাক্ষস-পুরীর জঞ্জালে ....! মুক্ত হয়ে গেছে সেই কবে ... ! দাদু নানোর কাছে শুনেছি সেই হাজার বছর আগে ..!

২৩ ফেব্রুয়ারী - ২০১১ গল্প/কবিতা: ১ টি

সমন্বিত স্কোর

৫.২

বিচারক স্কোরঃ ২.৮৪ / ৭.০ পাঠক স্কোরঃ ২.৩৬ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের আংশিক অথবা কোন সম্পাদনা ছাড়াই প্রকাশিত এবং গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী থাকবে না। লেখকই সব দায়ভার বহন করতে বাধ্য থাকবে।

প্রতি মাসেই পুরস্কার

বিচারক ও পাঠকদের ভোটে সেরা ৩টি গল্প ও ৩টি কবিতা পুরস্কার পাবে।

লেখা প্রতিযোগিতায় আপনিও লিখুন

  • প্রথম পুরস্কার ১৫০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • ্বিতীয় পুরস্কার ১০০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • তৃতীয় পুরস্কার সনদপত্র।

আগামী সংখ্যার বিষয়

গল্পের বিষয় "একাকীত্ব”
কবিতার বিষয় "একাকীত্ব”
লেখা জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২৫ মে,২০২১