ইস্টিশনঃ
মিছিলের আবেগ যে জানে না তার কবিজন্ম বৃথা?
এই প্রশ্ন করেও আমি কখনো দেশপ্রেম ইস্টিশনে
নামি নি। দূর থেকে শুধু অনেক মানুষ দেখেছি-
হাপিত্তিসের আওয়াজ শুনে চেনামুখ খুঁজেছি;
তবু আমার নামা হয় নি। অথচ চোখ ঝেঁপে
নামা আউলানো বৃষ্টি জানে- এমনতরো স্বপ্নে
কী পিপাসা নিয়ে আমি জেগে উঠি।

খোয়াবনামাঃ
সকালে খোয়াবনামায় আন্তঃনগর ট্রেনের মানে খুঁজি
দিনভর আয়ু পুড়াই মোহন জীবনের-সময় গড়ায়;
জানি প্রেম থাকলে অভিমান থাকে-আচ্ছন্নক্ষণে
মন চায় মিছিলে মিছিলে বদলে দেই দেশ
পুড়িয়ে দেই নেতাদের ঘরের ছিনালপনা গ্রন্থ
তাতে শেষমেশ মাপকাঠিতে কেউ মনে না রাখলে
না রাখুক। দেহ সাক্ষী-মাটি কাউকে ভোলে না।

আমিঃ
হারিয়ে যাওয়া মানুষের জন্য আজো আমরা কাঁদি
কিছু মানুষ হারাবে বলে জেগে থাকে প্রেমে
কাউকে না কাউকে তো এসব লিখতে হবে নাকি?
এই প্রশ্ন করেই সহযাত্রী টান মারে হাতে;
আমি বাহানা ধরি অজুহাত দেই আজ-কাল-পরশুর
জীবন চলে-মোহন সময়; তবু এক একদিন অস্থিরতায়
সকালে খোয়াবনামায় আন্তঃনগর ট্রেনের মানে খুঁজি।