ধন্য মোদের দেশ

আমার দেশ আমার অহংকার সংখ্যা

Dipok Kumar Bhadra
  • ১০
  • ৩৫২
বাংলাদেশে জম্মগ্রহণ করে, হয়েছি মোরা ধন্য
স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ করেছে মুক্তিযোদ্ধারা এর জন্য।
সুজলা সুফলা শষ্য শ্যামলা আমাদের এই দেশ
যতই সৌন্দর্যে্র কথা বলি, বলেও হয় না শেষ।
জমিতে ফসল ফলে আর পুকুরে মাছ চাষ হয়
টাটকা শাকশব্জি পাই আর খাদ্যও ভেজাল যুক্ত নয়।
সরল সোজা মানূষ সবাই এদেশে বাস করে
সবাই মোরা ভাই ভাই,বিপদে সবাই সবার তরে।
নারী পুরুষের সমান অধিকার এই দেশে আছে
কত যে অহংকার হয়, চিন্তা করলে বুঝবে পাছে।
ধর্মনিরপেক্ষ বলে দেশের জনগণ মিলেমিশে থাকে
কেও কারো সাথে বিবাদে জড়ায় না,সুসম্পর্ক বজায় রাখে।
এমন দেশটি পৃথিবীর কোথায় খুঁজে পাওয়া বড় দায়
এদেশের মানুষ হারাম খাবার বাদ দিয়ে,হালল খায়।
খাদ্যে সয়ংসম্পূর্ন এদেশ, কারো কাছে ভিক্ষা না মাগে
ক্ষুধায় কেও কষ্ট পায় না ,তাইতো সবার মনে আনন্দ জাগে।
খেলাধূলায আর পোষাক শিল্পে দেশ নাম করেছে সারা বিশ্বময়
একদিন এদেশ আরও এগিয়ে যাবে,পৃথিবী করবে জয়।
আমাদের দেশ, আমাদের অহংকার,এতে সন্দেহ নাই
বাংলাদেশ আরও উন্নত হোক, এটাই মোরা চাই।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
riktas সুনিপূন হাতের ছোঁয়া। খুব সুন্দর। এগিয়ে যান।
Dipok Kumar Bhadra যারা যারা আমার লেখনিতে লাইক দিয়ছেন বা মন্তব্য করেছেন এবং ভোট দিয়াছেন,তাদেরকে আমার প্রানের অন্তস্থল থেকে ধন্যবাদ
ফয়জুল মহী সুনির্মাণে সমুজ্জ্বল লেখা।

লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

সুজলা সুফলা শষ্য শ্যমলা এই দেশ । নিজেরা চাষকরে টাটকা শাকশব্জি ও ভেজালমুক্ত খাবার খেতে পারে । সবার মধ্যে সম্প্রীতি বজায় আছে । খেলাধূলায আর পোষাক শিল্পে সারা বিশ্বে বা্ংলাদেশের নাম ছড়িয়ে গেছে ।একদিন স্বয়ংসম্পূর্ন দেশে পরিনত হবে এই স্বাধীন বাংলাদেশ । এই দেশ আমাদের গর্ব,আমাদের অহংকার।

২০ মে - ২০২০ গল্প/কবিতা: ২ টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের আংশিক অথবা কোন সম্পাদনা ছাড়াই প্রকাশিত এবং গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী থাকবে না। লেখকই সব দায়ভার বহন করতে বাধ্য থাকবে।

প্রতি মাসেই পুরস্কার

বিচারক ও পাঠকদের ভোটে সেরা ৩টি গল্প ও ৩টি কবিতা পুরস্কার পাবে।

লেখা প্রতিযোগিতায় আপনিও লিখুন

  • প্রথম পুরস্কার ১৫০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • ্বিতীয় পুরস্কার ১০০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • তৃতীয় পুরস্কার সনদপত্র।

বিজ্ঞপ্তি

“নভেম্বর ২০২১” সংখ্যার জন্য গল্প/কবিতা প্রদানের সময় শেষ। আপনাদের পাঠানো গল্প/কবিতা গুলো রিভিউ হচ্ছে। ১ নভেম্বর, ২০২১ থেকে গল্প/কবিতা গুলো ভোটের জন্য উন্মুক্ত করা হবে এবং আগামি সংখ্যার বিষয় জানিয়ে দেয়া হবে।

প্রতিযোগিতার নিয়মাবলী