দশ মাসের ঝর তুফানে,
প্রসব কালো রাতে।
জীবনটাকে হাতের মুঠে,
কামড় দিয়ে দাঁতে।

তোমার গা'র ময়লা ধুতে,
মা'র লালে গোসল।
আদুল করে মা'র শরীর,
পুত্রে দিতো আঁচল।

বক্ষ তাহার ছিলো তোমার,
সে শ্রেষ্ঠ বিছানা।
মা'র বুক সবচে আপন,
এই কথাটি মিছানা।

আড়াই বছর পান করো,
মা'র বুকের দুধ।
কোন ধনেতে সেই ঋনের,
করবে তুমি শোধ?

চোখের পানি তেল কাজলে,
টিপে তোমার দেহ,
অসুখ হলেই রাত্রি জাগে,
খোজ রাখেনা কেহ।

মা তোমায় করতে বড়,
হাজার ব্যাথা সয়,
তাইতো বলি মায়ের মতো,
আপন কেহ নয়।

আজ তোমার বিশাল দেহ,
জোর অনেক গায়।
সিংহ ধরো বাঘ শিকারো,
মানুষে ভয় পায়।

মায়ের সাথে বলতে কথা,
শব্দ করো নিচু।
তাহার হাতে আরশে খোদা,
তোমার সব কিছু।

মায়ের মনে কষ্ট দিয়ে,
কাবার রশি টানো!
তোমার জায়গা হাবিয়াতে,
বলছে নবী জেনো।

মায়ের তরে বাড়াও তুমি,
ভালোবাসার হাত।
চাঁদের আলোয় কেটে যাবে,
আধার কালো রাত।

খোদার কাছে নাজাত পাবে,
ভাঙ্গলে সব ভুল।
তোমার তরে উঠবে ফুটে,
শত গোলাপ ফুল।