একটু একটু করে হাটতে শিখেছো
যার হাতের কনিষ্ঠ আঙুল ধরে
সময়ে-অসময়ে বায়না করেছো
দাওনি থাকতে যারে অবসরে
অথচ আজ - ভুলে যাও তুমি তাকে !
কেমন করে ?


মাথার ঘাম পায়ে ফেলে
সদা ব্যস্ত ছিলো যে পুরো জীবন জুড়ে
লোকচক্ষুর অন্তরালে
কেঁদেছে যে তোমার দু:খের কালে
অথচ আজ - ভুলে যাও তুমি তাকে !
কোন হালে ?


কেবলই তোমার সুখের ভাবনা
সব সময় ছিলো সাধনা যার
তোমার প্রত্যাশা পূরনে
নিজে পুড়ে হলো যে আঙ্গার
অথচ আজ - ভুলে যাও তুমি তাকে !
কী সমাচার ?


কালের বিবর্তনে তুমি খোকা আজ অনেক বড়
বিপ্রতীপে, তোমার পিতার বৃদ্ধ, রোগ-গ্রস্থ-কাঁপছে থরথর !
তুমি আজ আত্মকেন্দ্রিক, মহাব্যস্ত, সময় নেই-খোঁজ নিবে তার
জেনে রেখো, তুমি পৃথিবীর - সেরা অকৃতজ্ঞ, শ্রেষ্ঠ কুলাঙ্গার ।