মানবজীবনে ভয় থাকে সব সময়। সব ভয় কেটে গেলেও মৃত্যু ভয় কাটাবার নয়।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৩১ জুলাই ১৯৭৬
গল্প/কবিতা: ২টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - ভয় (ডিসেম্বর ২০১৮)

মানবজীবনের ভয়
ভয়

সংখ্যা

মোহাম্মদ নূরে আলম সিদ্দিকী

comment ৩  favorite ০  import_contacts ৩৯
ভয় হলো এক অজানা বিষয়, জাগায় মনে ত্রাস;
যার কারণে চমকে উঠি, হয় যে বুদ্ধি নাশ।
মায়ের ছোট্ট উদর থেকে এসেই ভূবনে শিশু
কেঁদে উঠে কিসের ভয়ে? জানি না তার কিছু।
থাকে না সে অন্যের কাছে, পায় না খোঁজে সুখ;
জোর করে নিলে তারে, হয় ফ্যাকাশে মুখ।
মায়ের কোলে নিজেকে শিশু ভাবে নিরাপদ
অন্যের কোলে গেলেই ভাবে-আহা কী বিপদ!
বাড়ে শিশুরা ধীরে ধীরে, কাটে তাদের ভয়;
নিত্য নতুন ভয়ের সাথে আবার দেখা হয়।
দিনে দিনে এভাবেই তারা করে ভয়কে জয়
হয়ে উঠে সাহসী মানুষ, মানতে না চায় ক্ষয়।
তারপরেও তো মানবজীবন চলে না ভয়হীন
কত অজানা শঙ্কার মাঝে কাটে সবার দিন।
কারো মনে কোন ভয়ই নাও যদি থাকে
মৃত্যু ভয় আষ্টেপৃষ্ষ্ঠে সবাইকে বেঁধে রাখে।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • মোহন মিত্র
    মোহন মিত্র কারো মনে কোন ভয়ই নাও যদি থাকে
    মৃত্যু ভয় আষ্টেপৃষ্ষ্ঠে সবাইকে বেঁধে রাখে। ভালো লাগলো
    প্রত্যুত্তর . ১ ডিসেম্বর
  • মোঃ মোখলেছুর  রহমান
    মোঃ মোখলেছুর রহমান ভাল লাগল কবিতা,মনে হয় মাত্রা বিষয়ে আরও সচেতনতা প্রয়োজন,ভাল থাকবেন।
    প্রত্যুত্তর . ২ ডিসেম্বর
  • আবু আরিছ
    আবু আরিছ জলের মত শব্দ সাজিয়েছেন, গাথুনি ও শব্দ চয়ন আরো উচ্চমার্গের হওয়া উচিত ছিল, শিশুর ক্রমবর্ধমান বর্ণনা দিয়েছেন ঠিকই, ট্রাজিক কোন উপমা নেই কেন?
    প্রত্যুত্তর . ৩ ডিসেম্বর

advertisement