সেপ্টেম্বর সংখ্যার কবিতার বিষয় হলো আঁধার,অর্থাৎ অন্ধকার‌‌‌‌‌‌‌‌‌!আর আমার কবিতার শিরোনাম ও আঁধার! স্বীকৃতি দিতে না চাওয়া সদ্যজাত শিশুর জীবনে নির্মম মৃত্যুুর যে অন্ধকার নেমে আসে,সেটাই আমি কবিতায় ব্যক্ত করার প্রয়াস করেছি!আরও বিশদভাবে বলা যায়,স্বীকৃতি না পাওয়া এক নবজাত শিশু কি করে চরম অবহেলায় হাজারো প্রশ্ন,অভিমান আর ক্ষুধায় কাতর হয়ে মৃত্যুর অনন্ত আঁধারে পতিত হয়,সেটাই কবিতায় তুলে ধরেছি!সুতরাং,কবিতার বিষয়বস্তুর আলোকে আমার কবিতাটি প্রদত্ত বিষয়ের সাথে অত্যন্ত সামঞ্জস্যপূর্ণ!
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১০ ফেব্রুয়ারী ১৯৮৫
গল্প/কবিতা: ১টি

সমন্বিত স্কোর

২.৮৩

বিচারক স্কোরঃ ১.৬৩ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.২ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - আঁধার (সেপ্টেম্বর ২০১৮)

আঁধার
আঁধার

সংখ্যা

মোট ভোট প্রাপ্ত পয়েন্ট ২.৮৩

Barna Dewan

comment ১২  favorite ০  import_contacts ১৯৪
পরিত্যক্ত কূপ এক,ঘুটঘুটে অন্ধকার,
থেকে থেকে আসছে ভেসে
নবজাত শিশুর ক্রন্দন চিৎকার!
বলছে যেন কে আছো কোথায়?
কেন আঁধারে আমার হয়েছে ঠাঁই?
কি আমি করেছি পাপ?
কেন আঁধার এ অভিশাপ?
কেন আমি আজ হারা ঘর,
নেই গায়ে একটুকু কাপড়?
নেই কেন উষ্ণ মায়ের কোল,
বাবার আদরে মাখা স্নেহবোল?
কেন বাবা এত তুমি নির্দয়,
চাও না দিতে নাম,পরিচয়?
কেন মা তুমি নিঠুর এত
রেখে গেছ আঁধারে আমায় হতে গত!

চরম অভিমান আর ক্ষুধায় কাতর,
ধীরে ধীরে হয়ে গেল সব নিথর!
নেই আর কোন প্রতিধ্বনি,চিৎকার,
জেগে আছে শুধু অনন্ত আঁধার!

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement