একচিলতে আয়েশী ভাব
গায়ে মেখে প্রতিক্ষায় তোমায়
সোনা ঝরা সকালের রোদ
নষ্টালজিয়া মন আজ
আড়ষ্টতায় ভর করে বাঁচে
নিয়ে এক জীবন্মৃত বোধ
নির্নিমেষ চাহনীর প্রতি দয়াবশত
কে যেন সামনে এসে দাড়াল আমার
আমি তাকে শুধালাম
কে ভাই তুমি
প্রত্যুত্তরে সে বলল,নাম তার আঁধার
জংঘা, গ্রীবা, পাদদেশ
সমস্ত কিছুতে অজস্র বলনা কি তার
মোকাবিলায় সিদ্ধ হস্ত সকল বিপত্তি বাধার
আমি বললাম তা হোক
তবু আমি তোমাকে চাই না
শিশিরের সাথে খেলা করা
হিমেল হাওয়ায় ভর করে আসা
সকালই আমার চাই
আমি আঁধারকে তাড়িয়ে দিলাম
গভীর ভর্ৎসনায়
তোমাকে তাড়িয়ে দিয়ে আঁধার
এখন আরো বেশী আপন তুমি
যেমন ভুলতে গেলে
বেশী মনে পড়ে পুড়া মনে প্রেয়সী
তোমাকে তাড়িয়ে দেওয়ার পর
হারিয়ে গেছে আমার
কাজল নয়ন তারার রন্ধ্র
অনেকটা পথ, অনেক সময়
দেরি হয়ে গেছে বুঝতে
তোমাতে আর আলোতে
নেই কোন দ্বন্দ্ব।