অন্যায় জেনেও অনেক সময় আমরা প্রতিবাদ করতে পারিনা, পিছুটান আমাদের থামিয়ে দেয়। আমরা চারপাশের আঁধার সরিয়ে আলো আনতে পারিনা। যদিও আলোর জন্য বুভুক্ষু মন। তাই আমরা মাথা নিচু করে বাঁচি। ভেতরের যে অন্ধকার তা দূর করতে না পারলে আমরা চিরকাল জীবন্মৃত হয়েই বেঁচে থাকব।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১০ ডিসেম্বর ১৯৭৪
গল্প/কবিতা: ১৩টি

সমন্বিত স্কোর

৫.৬৪

বিচারক স্কোরঃ ৩.৯৯ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৬৫ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - আঁধার (সেপ্টেম্বর ২০১৮)

আমার আপন আঁধার
আঁধার

সংখ্যা

মোট ভোট ২২ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৫.৬৪

তানভীর আহমেদ

comment ৩৫  favorite ০  import_contacts ৭৪৭
এ এমন এক আলো যা আঁধারের চেয়েও বেশী কালো
আলো ঝলমলিয়ে ওঠে আমার চোখে, মুখে, দেহে
আলোর বন্যায় ভাসে সকল নগর সব গ্রাম
আর মানচিত্র! তবুও একটুখানি আলোর আশা,
আলোর প্রত্যাশায় উন্মুখ চাতকের মতো মন।
আমার এ আপন আঁধারে করি আত্মসমর্পণ
বেঁচে থাকবার জন্য – গ্লানিময় এক জীবন নিয়ে।

মেঘের পরে মেঘ করে যে আঁধার ঘনিয়ে আসে
আমাদের রৌদ্রোজ্জ্বল আকাশে – আমাদের জীবনে
সে অন্ধকার ক্ষণস্থায়ী, নশ্বর এ প্রাণের মতো!
মনের ভেতরে যে কালো ঘনিয়ে আসে, চন্দ্রহীন
নিকষ রাতের মতো – চিরস্থায়ী সে কৃষ্ণবিবর
আমাদের কুরে কুরে খায়, ভেতরের সবকিছু
অবিরাম! এ ঘুনপোকা একান্তই আমার নিজস্ব!

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement