মধ্যে রাতে,
এক শূন্য ঘরে,
তামাক পাতা পুড়তে পুড়তে ছাইপাঁশ।
তোমার স্মৃতির ধোয়াই পরিপূর্ণ চারপাশ।

মাঝ দুপুরে,
এক শূন্য থালে,
হৃদয় পোড়া অশ্রু শিশিরের গড়াগড়ি।
তোমার চুড়ির ঝাঁকুনি বাজে এলোপাতাড়ি।

সন্ধ্যে ক্ষণে,
এক শূন্য বাড়িতে,
কেরোসিনের সংকটে দেহপিঞ্জর নিবুনিবু জ্বলে।
তোমার নামাজরূপী ছবিখানা জায়নামাজে দোলে।